বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২৫ মাঘ, ১৪২৯ | ১৬ রজব, ১৪৪৪

মূলপাতা আঞ্চলিক রাজনীতি

সুইডেনে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদ

রাজধানীতে জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :২৪ জানুয়ারি, ২০২৩ ২:২৬ : অপরাহ্ণ
আজ রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ। ছবি: সংগৃহীত

সুইডেনে পবিত্র কুরআন মাজিদ পোড়ানোর প্রতিবাদে এবং দেশের ত্রুটিপূর্ণ শিক্ষাব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর রায় সাহেব বাজার মোড় থেকে মিছিলটি শুরু হয়। মিছিলটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

মিছিলে নেতৃত্ব দেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের নায়েবে আমীর অ্যাডভোকেট ড. হেলাল উদ্দিন।

মিছিল পরবর্তী সমাবেশে ড. হেলাল উদ্দিন বলেন, মুসলমানদের আবেগ অনুভূতির প্রাণকেন্দ্র পবিত্র কুরআন মাজিদকে অবমাননা কোনো সভ্য মানুষ মেনে নিতে পারে না। সুইডেনে কুরআন পোড়ানোর এই ন্যক্কারজনক ঘটনা গোটা বিশ্বের মুসলমানদের হৃদয়ে আঘাত করেছে। আমরা কুরআন অবমাননার এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এই জামায়াত নেতা বলেন, সারাবিশ্বের দুইশত কোটি মুসলমান যে কুরআনকে লালন করে, সেই কুরআনের উপরে আঘাত করা মানে সমগ্র মুসলমানের কলিজায় আঘাত করা। আমরা এই ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সুইডেন সরকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

দেশের জনগণকে সুইডেনের সকল পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়ে হেলাল উদ্দিন বলেন, একটি মুসলিম রাষ্ট্র হিসেবে সরকারিভাবে নিন্দা জ্ঞাপন এবং অবিলম্বে জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব এনে সুইডেনের কুরআন অবমাননার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর জন্য আমরা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য ওআইসি এবং মুসলিম বিশ্বের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

এই জামায়াত নেতা আরও বলেন, বাংলাদেশের মুসলমানেরা আজ আশ্চর্য হয়, যে দেশে নব্বই ভাগ মুসলমানের বসবাস, সে দেশে আজ শিক্ষা ব্যবস্থায় ইসলাম ধর্মকে অবজ্ঞা করে শিক্ষার্থীদের পাঠ্যপুস্তক তৈরি করা হয়েছে। স্কুল শ্রেণীর পাঠ্য বইয়ে বলা হচ্ছে, মানুষ নাকি বানরের থেকে তৈরি! এ ধরনের মূর্খ ভ্রান্ত মিথ্যা গল্প কাহিনী বইয়ে প্রকাশ করায় নিন্দা জানাচ্ছি।

তিনি ইতিহাস বিকৃতি, ইসলামকে অবজ্ঞা করে পাঠ্যপুস্তক রচয়িতাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

বিক্ষোভ মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি দেলাওয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য অধ্যাপক মোকাররম হোসাইন, ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য আব্দুস সালাম, কামরুল আহসান, ইসলামী ছাত্রশিবিরের ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, ঢাকা মহানগরী পূর্বের সেক্রেটারি তাকরিম হাসান, ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ জামায়াতের বিভিন্ন থানা আমীর ও সেক্রেটারিবৃন্দ।


আরও খবর