বুধবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ | ১২ মাঘ, ১৪২৮ | ২২ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩

মূলপাতা আঞ্চলিক রাজনীতি

গডফাদার তার ৩০ বছরের উপাধি, শামীম ওসমানকে জবাব দিলেন আইভী


প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ প্রকাশের সময় :৯ জানুয়ারি, ২০২২ ৬:১৬ : অপরাহ্ণ

কী কারণে ‘গডফাদার’ বলা হলো-এ কে এম শামীম ওসমানকে তার জবাব চেয়েছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর কাছে।

একদিন পর শামীম ওসনমানকে ‘গডফাদার’ বলার জবাব দিয়েছেন সেলিনা হায়াৎ আইভী।

আইভী বলেন, ‘আমি তাকে এটা (গডফাদার) বলিনি, এটা তার বিগত ৩০ বছরের উপাধি। নারায়ণগঞ্জ নয়, সারা বাংলাদেশ তাকে জানে।’

আজ রোববার সকালে বন্দর এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণার শুরুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে গতকাল শনিবার দুপুরে নির্বাচনী প্রচারণার সময় সেলিনা হায়াৎ আইভী অভিযোগ করে বলেন, ‘তৈমূর আলম খন্দকার গডফাদার শামীম ওসমান ও সেলিম ওসমানের প্রার্থী। উনি (তৈমূর) বিএনপির প্রার্থী না, স্বতন্ত্র প্রার্থী না, তিনি ওসমান পরিবারের প্রার্থী।’

এরপর সন্ধ্যায় আইভীর এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসনমান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘দু’দিন আগে ভাই ছিলাম, এখন কেন গডফাদার হলাম? আপনারা আইভীকে প্রশ্ন করেন। তিনি কীভাবে একথা বলেছেন? আইভী আমাকে গডফাদার বলে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার প্রতি আঙুল তুলেছেন।’

আরও পড়ুন: দুদিন আগে ভাই ছিলাম, এখন কেন গডফাদার, আইভীকে শামীম ওসমান

সেলিনা হায়াত আইভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ অনেক বড় দল, এখানে সবার স্থান আছে। জনপ্রিয়দের যেমন স্থান আছে বিতর্কিতদেরও স্থান আছে। একটা বিশাল দলের মধ্যে সবাই থাকে। আওয়ামী লীগ একটি বিশাল বড় জনসমুদ্র। এখানে যে টিকে থাকার টিকে থাকবে যে চলে যাওয়ার চলে যাবে।’

আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘জনতাই ক্ষমতা, তিনি (শামীম ওসমান) আমার দলের লোক। তিনি সমর্থন দিলে দিবে, না দিলে না দিবে। তিনি আমাকে অপছন্দ করতেই পারেন। এটা কোনো ব্যাপার না। আমার কিছু করার নেই, জনগণের রায়ই রায়। তারা ষড়যন্ত্র করবে কিন্তু তা ধ্বংস করে দেবে জনগণ।’

আইভী বলেন, ‘কেন্দ্র সবকিছু দেখছে, তারা অবগত আছে। তারা কী ব্যবস্থা নেবে সেটা তাদের ব্যাপার। আমার বিষয় আমার জনগণ। আমার জনগণ কখনো কোন সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ গডফাদার খুনিকে গ্রহণ করেনি নারায়ণগঞ্জে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে। সেটা বারবার প্রমাণিত হয়েছে। কেন্দ্র কেন্দ্রের কাজ করবে, দল দলের কাজ করবে, জনতা জনতার কাজ করবে।’

আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘ভোটের মাঠ আমার দখলে। সারা নারায়ণগঞ্জের ভোটাররা আমার কথা বলে। আমার বিরুদ্ধে অনেক অপপ্রচার চালানো হয়েছে ধর্মীয় ব্যাপারে উস্কানি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোনটাতেই কাজ হবে না। আমি এ শহরে সাতটা মসজিদ করেছি। আমি শ্মশানের কাজ করেছি মন্দিরের কাজও করেছি। আশা করি ধর্মপ্রাণ যারা তারা মুসলিম হোক হিন্দু হোক- তারা কোনো অপপ্রচারে কান দেবেন না। সাধারণ জনগণ আমার সঙ্গে থাকবে।’


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর