বুধবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ | ১২ মাঘ, ১৪২৮ | ২২ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩

মূলপাতা দেশজুড়ে

বগুড়ায় ভোটের ফলাফল ঘোষণা নিয়ে সংঘর্ষ, বিজিবির গুলিতে নিহত ৪


প্রতিনিধি, বগুড়া প্রকাশের সময় :৫ জানুয়ারি, ২০২২ ১১:১৪ : অপরাহ্ণ

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে কেন্দ্রে ফলাফল ঘোষণা নিয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।

এ সময় বিজিবির গুলিতে এক নারীসহ চারজন নিহত হয়েছেন।

আজ বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা উচ্চবিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা এলাকার মো. খোকনের স্ত্রী কুলসুম আক্তার (৩৫), খোরশেদ আলী (৭০), আবদুর রশিদ (৪৮) ও আলমগীর (৪০)।

এদের মধ্যে কুলসুম আক্তার একজন প্রার্থীর এজেন্ট ছিলেন।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী গুলিতে চারজন নিহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার দিনভর ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যায় গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালিয়াহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গণনা চলছিল।

ওই কেন্দ্র আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইউনুস আলী ফকিরের বাড়ির কাছে।

ভোট গণনা হলেও প্রশাসনের কর্তারা সেখানে ফলাফল ঘোষণা দিতে অসম্মতি জানান।

তারা ব্যালট বগুড়া সদরে আনার প্রস্তুতি নেন।

অভিযোগ উঠে, প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা তার আত্মীয় বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা মার্কার সাকিউল ইসলাম তিতু বা ঘোড়া মার্কার মাহবুবুর রহমানের পক্ষ নিচ্ছেন।

এ সময় নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন।

তারা ফলাফল ঘোষণার দাবিতে সড়কে কাঠের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ করেন। শত শত নারী পুরুষ লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় অবস্থান নেন এবং মারমুখী হয়ে উঠেন।

তখন দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেন।

এ সময় অন্তত চারজন নিহত ও ৫-৬ জন আহত হওয়ার খবর প্রচার হলে নৌকা মার্কার বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা কেন্দ্রে ব্যাপক ভাংচুর চালান।

তারা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের গাড়ি ভাংচুর করেন।

এ প্রসঙ্গে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আহমেদ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহান জানিয়েছেন, আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছেন।

আরও পড়ুন: ইউপি নির্বাচন: বোয়ালখালীতে দফায় দফায় সংঘর্ষ, চেয়ারম্যান প্রার্থী আহত


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর