রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ৯ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা বিনোদন

সালমান শাহ’র মৃত্যুবার্ষিকী আজ: মরিয়াও অমর হয়ে আছেন


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১২:০৩ : অপরাহ্ণ
সালমান শাহ

কারও কাছে স্বপ্নের নায়ক, কারও কাছে আদর্শ, এখনও তাকে ফলো করেন অনেকে, তার স্টাইল ধারণ করে নিজেকে সাজান। মৃত্যুর ২৬ বছর পরও তার জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েনি একটুও বরং বেড়েছে। তিনি সালমান শাহ। চলচ্চিত্রের এই অমর নায়কের ২৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ।

১৯৯৬ সালের এই দিনে অসংখ্য ভক্তকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। তাকে বলা হয় বাংলা চলচ্চিত্রের ফ্যাশন আইকন।

জীবদ্দশায় মাত্র ২৭টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি।এখনো টেলিভিশনে তার সিনেমা প্রচার হলে দর্শক আগ্রহ নিয়ে দেখেন। গুণগুনিয়ে গান তার সিনেমার গানগুলো।

মৃত্যুর ২৬ বছর পেরিয়ে গেলেও তিনি খুন হয়েছেন নাকি আত্মাহত্যা করেছেন, এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা যায়নি আজও!

বিগত ২৬ বছর ধরে চলছে তার হত্যা মামলার তদন্ত।

পিবিআইয়ের সর্বশেষ প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, সালমান শাহ আত্মাহত্যা করেছেন। সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী এই তদন্ত প্রতিবেদন মানতে নারাজ। তিনি শুরু থেকেই বলে এসেছেন আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

সম্প্রতি লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী পিআইবির তদন্ত রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেছেন এবং সালমানকে যে পরিকল্পিতভাবে হত্যার নানা যুক্তি ও ঘটনার বিশদ তুলে ধরেন।

সালমান শাহ’র জন্ম ১৯৭১ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর সিলেট জেলার জকিগঞ্জ উপজেলায়। তার পারিবারিক নাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন। তার পিতার নাম কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মাতা নীলা চৌধুরী।

দুই ভাইয়ের মধ্যে সালমান বড় ছিলেন। ছোটবেলায় তিনি ছিলেন কণ্ঠশিল্পী। ইমন নামে অভিনয়জীবন শুরু হয় বিটিভিতে শিশুশিল্পী হিসেবে।

১৯৮৬ সালে ছায়ানট থেকে পল্লীগীতিতে পাস করেছিলেন। চলচ্চিত্রে আসার আগে ১৯৯২ সালের ১২ আগস্ট বিয়ে করেন তিনি। চলচ্চিত্রে আসার আগে তিনি নাটকে অভিনয় করেছিলেন।

মঈনুল আহসান সাবেরের লেখা ধারাবাহিক ‘পাথর সময়’-এ একটি চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে সালমান শাহ’র অভিনয় জীবন শুরু হয়। পরবর্তীতে আরো বেশকিছু নাটকে অভিনয় করেন।

১৯৯৩ সালে সোহানুর রহমান সোহানের ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ সিনেমা দিয়ে সালমান শাহ’র চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু। এ সিনেমার মাধ্যমে মৌসুমীরও চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। সিনেমাটি অসম্ভব জনপ্রিয়তা পায়।

তারপর থেকে সালমান শাহকে আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়ে দর্শকের মাঝে অসম্ভব ক্রেজ সৃষ্টি করেন।

তিন বছরে অভিনয় করেছেন মোট ২৭টি ব্যবসাসফল সিনেমায়। তুমুল জনপ্রিয়তায় হার মানিয়েছেন উপমহাদেশের অনেক নামিদামি তারকাকেও।

কিন্তু হঠাৎ সব কিছু থেমে গেল! ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সবাইকে হতবাক করে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি।


আরও খবর