বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

মূলপাতা রাজধানী

অবরোধে রাস্তায় যানবাহন কম, বিএনপি-জামায়াতের পিকেটিং


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :২৪ ডিসেম্বর, ২০২৩ ১০:১৭ : পূর্বাহ্ণ
অবরোধ চলাকালে আজ সকালে রাজধানীর ব্যস্ততম এলাকা ফার্মগেটে যান চলাচল ছিল সীমিত। ছবি: সংগৃহীত
Rajnitisangbad Facebook Page

সরকার পতনের একদফা দাবিতে আজ রোববার সারাদেশে বিএনপির সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ চলছে। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সারাদেশে সড়ক, নৌ ও রেলপথে সর্বাত্মক এ অবরোধ চলবে।

অবরোধের শুরুতে সকালে রাজধানীর সড়কগুলোতে যানবাহন চলাচল ছিল খুবই কম। গণপরিবহন খুব কম চলাচল করছে। গণপরিবহনের সংকটে অনেক মানুষকে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। তবে সড়কে ব্যক্তিগত গাড়ি, সিএনজি, মোটরসাইকেল ও রিকশা চলতে দেখা গেছে।

এদিকে গাবতলী, মহাখালী ও সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে সকাল থেকে কোনো দূরপাল্লার বাস ছাড়েনি। দূরপাল্লার বাসগুলোকে বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান করতে দেখা গেছে। বেশিরভাগ দূরপাল্লার বাসে যাত্রী নেই।

অবরোধের সমর্থনে আজ সকালে কুমিল্লার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনার গোবিন্দপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল বের হয়। এ সময় তারা সড়কে পিকেটিং করেন।

মিছিলপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রুহুল কবির রিজভী বলেন, আজকে দেশের অর্থনীতির কী করুণ পরিণতি। বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সিপিডি বলেছে, ২০০৮ থেকে ২০২৩ পর্যন্ত এই ১৫ বছরে ব্যাংক খাত থেকে অনিয়মের মাধ্যমে ৯২ হাজার ২৬১ কোটি টাকা লুটপাট করা হয়েছে। দেশের জনগণের কষ্টার্জিত এসব টাকা লুট করে ডামি ভোটে ঢালছে তারা। আজকে আওয়ামী লীগ সরকার বিরোধী দল ছাড়াই একতরফা ডামি নির্বাচনের আয়োজন করেছে।

অবরোধের সমর্থনে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জামায়াতে ইসলামীও। ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ জামায়াতের নেতাকর্মীরা রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে মিছিল ও পিকেটিং করেন।

অবরোধের সমর্থনে গতরাতে ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় মশাল মিছিল বের করেছে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনগুলো।

গতকাল শনিবার রাতে রাজধানীতে এক ঘণ্টায় তিনটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। রাত সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে গুলিস্থান, মিরপুর ও কলাবাগানে বাসে আগুন দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশ চলাকালে দলটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়।

এ ঘটনার পর সরকার পতনের একদফা দাবিতে দফায় দফায় অবরোধ ও হরতাল কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি-জামায়াত ও যুগপৎ আন্দোলনে থাকা দলগুলো।

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর