শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪ | ৭ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৪ জিলহজ, ১৪৪৫

মূলপাতা চট্ট-মেট্টো

চট্টগ্রাম-১০ আসনে উপনির্বাচন: ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম প্রকাশের সময় :৩০ জুলাই, ২০২৩ ১১:০৩ : পূর্বাহ্ণ
চট্টগ্রাম নগরীর রামপুর নতুন বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ভোটার শূন্য। ছবি: সংগৃহীত
Rajnitisangbad Facebook Page

চট্টগ্রাম-১০ (খুলশী, হালিশহর ও ডবলমুরিং) আসনের উপনির্বাচনে ভোট চলছে। আজ রোববার সকাল ৮টায় ১৫৬টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট শুরু হয়; যা চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

বিএনপিবিহীন এই উপনির্বাচনে কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম। নগরীর রামপুর নতুন বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নারীদের তিন ও চার নম্বর বুথে ভোটার আছে তিনশত ৯৬ জন করে। সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ওই দুই বুথে ভোট পড়েছে মাত্র একটি করে।

ভোটকেন্দ্রে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়া অন্য প্রার্থীদের পোলিং এজেন্ট নেই। নৌকার প্রার্থী ছাড়া ভোটের মাঠে অন্য প্রার্থীদের কোনো প্রচারণা চালাতেও দেখা যায়নি। সে হিসাবে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিজয় অনেক সুনিশ্চিত বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ৮, ১১, ১২, ১৩, ১৪, ২৪, ২৫ ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত চট্টগ্রাম-১০ আসন। এ আসনে মোট ৪ লাখ ৮৮ হাজার ৬৩৩ জন ভোটার রয়েছেন।

এই উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের মো. মহিউদ্দিন বাচ্চু, লাঙল প্রতীকে জাতীয় পার্টির মো. সামসুল আলম, সোনালী আঁশ প্রতীকে তৃণমূল বিএনপির দীপক কুমার পালিত, ছড়ি প্রতীকে বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের রশীদ মিয়া, বেলুন প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আরমান আলী ও রকেট প্রতীকে মনজুরুল ইসলাম ভূঁইয়া প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

চট্টগ্রাম নগরীর টাইগারপাস এলাকায় নিউ টাগারপাস প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে সকাল ৮টার পরপরই ভোট দিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মহিউদ্দিন বাচ্চু। ভোট দেওয়া শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।’

চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান বলেন, সুষ্ঠু ভোট করতে ১৫৬টি কেন্দ্রে এক হাজার ৪৯৭টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। এসব সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। কেন্দ্রে কোনো প্রার্থী বা তার সমর্থকরা প্রভাব বিস্তার করলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

এই আসনে গত তিনবারের সংসদ সদস্য ছিলেন ডা. আফছারুল আমীন। গত ২ জুন তার মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়।

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর