বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

মূলপাতা দেশজুড়ে

সীমান্তে গুলি করে মেরে বাংলাদেশির লাশ নিয়ে গেলো বিএসএফ


রাজনীতি সংবাদ প্রতিনিধি, লালমনিরহাট প্রকাশের সময় :৫ জুন, ২০২৩ ১১:৪৩ : পূর্বাহ্ণ
Rajnitisangbad Facebook Page

লালমনিরহাট সীমান্তে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে মেরে তার লাশও নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সদস্যরা।

আজ সোমবার ভোরে পাটগ্রাম উপজেলার কালীরহাট সীমান্তের মেসেরডাঙ্গা এলাকায় ৮৫৭ নাম্বার মেইন পিলারের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইউসুফ আলী (২৫) পাটগ্রাম উপজেলার জগতবেড় ইউনিয়নের মেসেরডাঙ্গা গ্রামের শাহজামালের ছেলে।

জগতবেড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বলেন, ১০-১২ জন বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী ভারতের অভ্যন্তরে গিয়েছিল গরু আনতে। সোমবার ভোরে ভারতের সরকারপাড়া এলাকা থেকে তারা গরু আনছিলেন। এ সময় সীমান্তে টহলরত বিএসএফ সদস্যরা বাংলাদেশিদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। অন্যরা পালিয়ে বাংলাদেশে আসলেও ইউসুফ আলী গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান। বিএসএফ নিহত বাংলাদেশির লাশ নিয়ে গেছে।

৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের কালীরহাট বিওপি ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েক সুবেদার সাদেকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গুলি করে বাংলাদেশি হত্যার ঘটনায় বিএসএফকে প্রতিবাদপত্র পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া নিহতের মরদেহ ফেরত পেতে বিএসএফকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ভারত সফরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৬ সেপ্টেম্বর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে শেখ হাসিনার আনুষ্ঠানিক দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে সীমান্ত হত্যা শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এরপরও সীমান্তে একের পর এক বাংলাদেশিদের হত্যার ঘটনা ঘটছে।

সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে হত্যার ঘটনা প্রসঙ্গে গত ১০ অক্টোবর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের বলেছিলেন, বাংলাদেশ-ভারতের সর্বোচ্চ পর্যায়ে সিদ্ধান্ত হওয়ার পরও সীমান্তে মানুষ হত্যার ঘটনা বাংলাদেশেরর জন্য দুঃখজনক আর ভারতের জন্য লজ্জাজনক।

আরও পড়ুন: বিএসএফকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারা ভারতের জন্য লজ্জার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর