বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২৫ মাঘ, ১৪২৯ | ১৬ রজব, ১৪৪৪

মূলপাতা আন্তর্জাতিক

যে ভিক্ষুকের আছে বিলাসবহুল গাড়ি


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :২৩ জানুয়ারি, ২০২৩ ১১:০৫ : অপরাহ্ণ
সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে এই নারী রাস্তার পাশে বসে ভিক্ষা করেন। কিন্তু তার রয়েছে বিলাসবহুল গাড়ি। ছবি: সংগৃহীত

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে ভিক্ষা করেন এক নারী। সম্প্রতি তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ তদন্ত করে জানতে পেরেছে, এই ভিক্ষুকের আছে বিলাসবহুল গাড়ি। আর আছে প্রচুর নগদ অর্থ।

কর্তৃপক্ষ বলেছে, কোনো ভিক্ষাবৃত্তি হলো একটি সভ্য সমাজের অবনতিশীল ভাবমূর্তি। এ জন্য তারা মাঝে মাঝেই ভিক্ষুকবিরোধী অভিযান চালায়।

৬ নভেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ ভিক্ষা করার দায়ে গ্রেপ্তার করেছে ১৫৯ জনকে। এর মধ্যে আছেন ওই নারী।

তিনি নিজেই নিজের বিলাসবহুল গাড়ি চালান। তা সত্ত্বেও রাস্তার পাশে বসে থাকেন ভিক্ষার জন্য।

তাকে দেখে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হয়। তারা বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে নেয়। ফলে ওই নারী ভিক্ষুকের ওপর নজরদারি শুরু করে পুলিশ।

দেখা যায়, শহরের বিভিন্ন এলাকায় মসজিদের সামনে তিনি ভিক্ষা করেন। এ জন্য কোথাও গাড়ি পার্ক করে অনেক দূরের পথে হেঁটে যান। তার ওই গাড়িটি সর্বশেষ বিলাসবহুল মডেলের।

ভিক্ষা করে বিপুল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করেন তিনি। পুলিশ তাও দেখতে পেয়েছে। তার কাছ থেকে এসব অর্থ জব্দ করা হয়েছে এবং এই নারীর বিচার করা হয়েছে।

পুলিশ বলেছে, একটি সমাজে ভিক্ষা হলো অসভ্যের কাজ। সংযুক্ত আরব আমিরাতে এটা একটা ক্রাইম। ভিক্ষুকরা বেশ প্রতারণার আশ্রয় নেন এবং মানুষকে ঠকায়।

আরব আমিরাতের পাবলিক প্রসিকিউটররা বলেন, সেখানে ভিক্ষা করার শাস্তি হলো তিন মাসের জেল এবং কমপক্ষে ৫ হাজার দিরহাম (১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা) জরিমানা অথবা উভয় দণ্ড। সুসংগঠিত ভিক্ষাবৃত্তির সাজা ৬ মাস। জরিমানা কমপক্ষে এক লাখ দিরহাম।


আরও খবর