শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪ | ৭ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১০ শাওয়াল, ১৪৪৫

মূলপাতা জাতীয়

শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে ‘অশনি’


নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশের সময় :৮ মে, ২০২২ ১১:২৯ : পূর্বাহ্ণ
Rajnitisangbad Facebook Page

দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগর বিক্ষুব্ধ থাকায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে সংকেত বাড়িয়ে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

দক্ষিণ আন্দামান সাগরে শুক্রবার একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হওয়ার পর তা ঘনীভূত হয়ে শনিবার নিম্নচাপ এবং পরে গভীর নিম্নচাপের রূপ নেয়। এরপর দ্রুত শক্তি সঞ্চয় করে আজ রোববার ভোরে পরিণত হয় ঘূর্ণিঝড়ে।

ঘণ্টায় ৮৮ কিলোমিটার গতির বাতাসের এ ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেওয়া হয়েছে অশনি। সিংহলা ভাষায় এর অর্থ ক্রোধ।

আবহাওয়ার বিশেষ বুলটিনে বলা হয়েছে, রোববার সকাল ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১২৫৫ কিলোমিটার দক্ষিণ দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১১৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১২৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ১২০৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’।

সে সময় ঘূর্ণিঝড় কোন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝাড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে এবং গভীর সাগরে বিচরণ না করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে ভারতের আবহাওয়া অফিস বলছে, ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ আরও ঘণীভূত হয়ে উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পরিণত হতে পারে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে।

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর