বুধবার, ৬ জুলাই, ২০২২ | ২২ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৬ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা আন্তর্জাতিক

জাতিসংঘের চাপের মুখে মিয়ানমার


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১১:২৯ : পূর্বাহ্ণ

মিয়ানমারে বেসামরিক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরে ও গণতন্ত্রীপন্থী নেত্রী অং সান সু চির মুক্তির দাবি জানিয়েছে জাতিসংঘের শীর্ষ মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। স্থানীয় সময় গতকাল (১২ ফেব্রুয়ারি) শুক্রবার রাতে জেনেভায় কাউন্সিলের জরুরি অধিবেশনে এ আহ্বান জানানো হয়।

এমন এক সময় জাতিসংঘ এই ইস্যুতে সরব হলো যখন জান্তা শাসনের বিরুদ্ধে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটিতে সপ্তমদিনের মতো গণবিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।

অধিবেশনের শুরুতে জাতিসংঘের উপ-মানবাধিকার প্রধান নাদা আল-নাসিফ বলেন, মিয়ানমারে যা ঘটছে, বিশ্ব তা দেখছে।

তিনি আরও বলেছেন, সু চি এবং প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট ছাড়াও এক ফেব্রুয়ারি থেকে এখন ৩৫০ জনের বেশি জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে অ্যাক্টিভিস্ট, সাংবাদিক, শিক্ষার্থী এবং দেশটির সাধুরা আছেন।

নাশিফ সুস্পষ্ট করে বলেন, এটি পরিষ্কার যে, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর প্রাণঘাতী কিংবা প্রাণঘাতী নয়-নির্বিচারে এমন কোনও অস্ত্র ব্যবহার গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

জাতিসংঘের জরুরি অধিবেশনকে মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বলে আখ্যায়িত করে নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির ঐতিহ্যবাহী মিত্র দেশ রাশিয়া ও চীন।

এদিকে মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলছে। এদিকে দেশটির সেনাবাহিনী মানবতা লঙ্ঘন করে বিক্ষোভকারীদের উপর গোলাবারুদ ছুড়ছে বলেও গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার হচ্ছে। মিয়ানমারে এমন পরিস্থিতিতে পার্লামেন্টের সদস্যরা সেনাবাহিনীর মানবতা লঙ্ঘন অপরাধের বিষয়ে তদন্ত করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘকে। দেশটির ৩০০ জন এমপির স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে জাতিসংঘকে এই আহ্বান জানানো হয়েছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রধান দেশটির মানুষদের আন্দোলনকে বিবেকবর্জিত আখ্যা দিয়ে সরকারি সকল কর্মকর্তাকে কাজে যোগ দেয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে মিয়ানমারের সঙ্গে সব ধরনের উচ্চ পর্যায়ের রাজনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত করছে নিউজিল্যান্ড। একই সঙ্গে দেশটি মিয়ানমারের সামরিক নেতাদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে। গত মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডার্ন মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই ঘোষণা দেন।

এছাড়া মিয়ানমারের অভ্যুত্থানের সঙ্গে জড়িত সামরিক নেতাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপে একটি নির্বাহী আদেশ অনুমোদন করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর