fbpx





বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০২২ | ২১ আশ্বিন, ১৪২৯ | ৯ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা আন্তর্জাতিক

বাইডেনের নাম উল্লেখ না করে শুভেচ্ছা জানিয়ে হোয়াইট হাউস ছাড়লেন ট্রাম্প


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :২০ জানুয়ারি, ২০২১ ৮:০১ : অপরাহ্ণ

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদে তার উত্তরসূরি জো বাইডেনের নাম উল্লেখ না করে শুভকামনা জানিয়ে হোয়াইট হাউস থেকে বিদায় নিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার (২০ জানুয়ারি) শেষ বারের মতো প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন ছাড়ার আগে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি ওকে শুভকামনা জানাচ্ছি।’

আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘দেশে নতুন একটি সরকার অধিষ্ঠিত হতে চলেছে। নিরাপদ ও সমৃদ্ধ আমেরিকা গড়ার লক্ষ্যে আমি সেই সরকারের সাফল্য কামনা করছি।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষ করে মেলানিয়ার হাত ধরে হোয়াইট হাউস ছেড়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেকের আগেই হোয়াইট হাউস ত্যাগ করলেন তিনি। অভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ না নেওয়ার কথা আগেই জানিয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প। কথামতো অভিষেকের দিন ভোরেই হোয়াইট হাউস ছাড়লেন তিনি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১৫২ বছরের ইতিহাস ভেঙে নব-নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের শপথ-গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ না নিয়ে হোয়াইট হাউজ ছাড়লেন দেশটির ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার স্থানীয় সময় সকালে ট্রাম্প একটি হেলিকপ্টার করে এন্ড্রিউ বেজ যান এবং সেখান থেকে বিমানবাহিনীর একটি বিমানে করে ফ্লোরিডার উদ্দেশ্যে রওনা হন।

হোয়াইট হাউস থেকে বেরিয়ে আসার সময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করা আমার জন্য অনেক সম্মানের বিষয়।’

বিদায় নেওয়ার সময় বেস অ্যান্ড্রুজ থেকে এক বক্তব্যে ট্রাম্প জনগণের পক্ষে ‘সবসময় পাশে থাকা’র প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। আগত বাইডেন প্রশাসনকে ‘শুভ কামনা’ও জানিয়েছেন তিনি।

সেখানে উপস্থিত সমর্থক ও সহযোগীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা চমৎকার মানুষ। আমাদের দেশটি সত্যিই খুব দুর্দান্ত। আপনাদের প্রেসিডেন্ট হওয়া আমার জন্য সবচেয়ে বড় সম্মান এবং সুযোগ ছিল।’

প্রশাসনের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আমি সবসময় আপনাদের পক্ষে লড়াই করবো। আমি আপনাদের পাশে আছি। আমি এটি শুনেছি এবং আপনাদেরও বলবো যে এই দেশের ভবিষ্যৎ এর চেয়ে উজ্জ্বল আগে কখনও ছিল না। আমি নতুন প্রশাসনকে শুভ কামনা জানাই ও সাফল্য কামনা করি। আমি মনে করি তারা দুর্দান্ত সফল হবে।’

ফ্লাইটে ওঠার আগে ট্রাম্প বলেন, ‘সবাইকে বিদায়। আমরা আপনাদের ভালোবাসি। আমরা আবার অন্য কোনোভাবে ফিরে আসবো।’

১৮৬৯ সাল থেকে বিদায়ী প্রেসিডেন্টরা নব-নির্বাচিত প্রেসিডেন্টদের কর্মদিবসে উপস্থিত থাকছেন। কিন্তু ট্রাম্পই দেশটির এই দীর্ঘ ১৫২ বছরের ইতিহাসে ব্যতিক্রম করলেন।

সিএনএন বলছে, হোয়াইট হাউস থেকে জয়েন্ট বেজ অ্যান্ড্রুজে যাচ্ছেন ট্রাম্প। সেখানে তার জন্য ছোট পরিসরে একটি বিদায় অনুষ্ঠান হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে তিনি একটিসংক্ষিপ্ত বিদায়ী ভাষণ দেবেন। এর পরই তিনি শেষবারের মতো এয়ার ফোর্স ওয়ানে চড়ে শেষবারের মতো ফ্লোরিডার পাম বিচে যাবেন।

মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বিদায় জানান ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। তিনিই এদিন বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠানে থাকবেন।

গত বছরের ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তি হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করে জয়ী হন বাইডেন। নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী বাইডেন ৩০৬টি ইলেকটোরাল ভোট পেয়ে জয় লাভ করেন। অন্যদিকে ট্রাম্প পান ২৩২টি ইলেকটোরাল ভোট।


আরও খবর