সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২ | ২০ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৪ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা আওয়ামী লীগ

এই দেশের মাটিতে সকল ধর্মের মানুষ সমান সুযোগ নিয়ে চলবে: প্রধানমন্ত্রী


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :১৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ১০:৩৯ : অপরাহ্ণ

‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে কথা ওঠার চেষ্টা হয়েছে’-এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। এই দেশের মাটিতে মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সকল ধর্মের মানুষ সমান সুযোগ নিয়ে চলবে। কোন অপশক্তিই অসম্প্রদায়িক বাঙালির চেতনাকে মুছে দিতে পারবে না।’

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) বিকেলে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একথা বলেন। গণভবন থেকে তিনি ভার্চ্যুয়ালি সভায় যোগ দেন। তিনি এতে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় দলের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মনে রাখতে হবে, সবাই এক হয়ে মুক্তিযুদ্ধে রক্ত ঢেলে দিয়ে স্বাধীন করেছি। এ দেশের মাটিতে ধর্ম-বর্ণ র্নিবিশেষে সবাই সবার অধিকার নিয়ে বাস করবে, যার যার ধর্ম পালনের সবার সমান অধিকার থাকবে। সেই চেতনায় আমরা বিশ্বাস করি। নবী করিম (সা.) আমাদের সেই শিক্ষাই দিয়েছেন। ।’

দলীয় নেতাকর্মীদের যেকোন পরিস্থিতি সহনশীলতার সাথে মোকাবেলা করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, ‘সবাইকে যেকোন পরিস্থিতি সহনশীলতার সাথে মোকাবেলা করতে হবে। কে কি বলল না বলল সেগুলো শোনার থেকে দেশের জন্য কতটুকু করতে পারলাম সে চিন্তা করতে হবে। তাহলে আমরা সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারব, সঠিক কাজটি করতে পারব। যদিও আমরা সেভাবেই কাজ করে যাচ্ছি।’

আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, সবাইকে অনুরোধ করবো আমাদের সংগঠনটাকে শক্তিশালী করতে হবে। জাতির পিতার আদর্শকে মানুষের কাছে নিয়ে যেতে হবে। যে নামটি ৭৫ এরপর মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছিল, আজকে আপনারা জানেন ইউনেস্কো ঘোষণা দিয়েছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে আন্তর্জাতিক পুরস্কার দেওয়া হবে, অর্থনীতিতে যারা অবদান রাখতে পারবে তাদের। মুজিববর্ষে জাতির জন্য এটা বড় উপহার বলে মনে করি।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে যেসব রাষ্ট্র সমর্থন করেছে তাদের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, আমি এই বিজয়ের মুহূর্তে স্মরণ করি যেসব রাষ্ট্র আমাদের পাশে ছিল। বিশেষ করে ভারত, দেশটির প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধী, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও জনগণ আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল। এছাড়া সোভিয়েত, রাশিয়াসহ অন্যান্য দেশগুলো আমাদের সমর্থন দিয়েছে।

বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা মতিয়া চৌধুরী, আব্দুর রাজ্জাক, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, ড. হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, মির্জা আজম; ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু আহাম্মদ মন্নাফি। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর