বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই, ২০২২ | ২৩ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৭ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা জাতীয়

সার্বভৌমত্বে আঘাত এলে প্রতিঘাত করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :১৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ২:৩৬ : অপরাহ্ণ

রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের পরও মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশ কোনো সংঘাতে যায়নি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘মিয়ানমার জোরপূর্বক রোহিঙ্গা পাঠালেও আমরা তাদের সঙ্গে সংঘাতে যায়নি। আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই। তবে দেশের সার্বভৌমত্বে আঘাত এলে প্রতিঘাত করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।’

রোববার (১৩ ডিসেম্বর) ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স এবং আর্মড ফোর্সেস ওয়ার কোর্সের গ্রাজুয়েশন অনুষ্ঠানে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের প্রধানমন্ত্রী এ তাগিদ দেন।

পেশাগত দায়িত্ব পালনে আরও দক্ষ করে গড়ে তুলতে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। এ বছর সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীসহ পুলিশ, প্রসাশন ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ৫৭ জন প্রশিক্ষণার্থী এবং বন্ধুপ্রতিম ১২ দেশের ২৫জন ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স সম্পন্ন করেন।

এছাড়াও আর্মড ফোর্সেস ওয়ার কোর্স সম্পন্ন করেছেন তিন বাহিনীর ৫২ জন কর্মকর্তা।

কোর্স সম্পন্ন হওয়ায় গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে গ্র্যাজুয়েটদের হাতে সনদ তুলে দেয়া হয়। সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সর্বদা সচেষ্ট থাকতে বলেন প্রধানমন্ত্রী।

মিয়ানমার থেকে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গার বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়ার প্রসঙ্গ টেনে সরকার প্রধান বলেন, আমরা তাদের সঙ্গে কখনও সংঘাতে যাইনি, কিন্তু আলোচনা করে এটা সমাধান করার চেষ্টা করছি এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও সবাইকে আমরা এই আহ্বান জানিয়েছি যে, এই যে বিশাল একটা বোঝা আমাদের উপর, এটা যেন খুব দ্রুত তারা সমাধান করেন।

দেশের উন্নতির জন্য বিনিয়োগের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, আমার দেশের উন্নতি করতে হবে, তার জন্য বিনিয়োগ প্রয়োজন। বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য সবার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখে যেখানে যতটুকু সহযোগিতা পাওয়া যায় এবং যাদের কাছ থেকে যতটুকু প্রযুক্তিজ্ঞান পাওয়া যায়, সেইটুকু নিয়েই আমরা আমাদের দেশকে গড়ে তোলার চেষ্টা করে যাচ্ছি।

সশস্ত্র বাহিনীর প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সাধুবাদ জানাই সশ্রস্ত্র বাহিনীকে কারণ আমি দেখেছি প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা যেকোনো সময় সশস্ত্র বাহিনী মানুষের পাশে দাঁড়ান। বিশেষ করে এবার কোভিড-১৯ এর সময় ব্যাপকভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে আপনারা সেবা দিয়েছেন। নিজেদের জীবন ঝুঁকিতে রেখে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ’


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর