বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

মূলপাতা জাতীয়

প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব ও গাম্বিয়া সফর বাতিল


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :১৬ এপ্রিল, ২০২৪ ১১:০৩ : অপরাহ্ণ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি
Rajnitisangbad Facebook Page

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌদি আরব ও গাম্বিয়া সফর বাতিল করা হয়েছে। আগামী ২৮ এপ্রিল থেকে রিয়াদে শুরু হতে যাওয়া দু’দিনের ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের বিশেষ বৈঠক এবং ৩-৪ মে গাম্বিয়ার রাজধানী বানজুলে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশনের (ওআইসি) ১৫তম শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে সরকার প্রধানের দেশ দু’টি সফরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী দু’টি সম্মেলনেই অংশ নিচ্ছেন না।

আচমকা ঘোলাটে হওয়া মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতি ওআইসির বানজুল সামিট এবং রিয়াদের ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের বৈঠকে অনিশ্চয়তার ছায়া ফেলেছিল। কিন্তু শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আয়োজকরা সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে এখনো সামিটি দু’টি অনুষ্ঠানের ঘোষণায় অনড় রয়েছেন।

সেগুনবাগিচা বলছে, সামিট অন থাকলেও প্রধানমন্ত্রী যাচ্ছেন না এটা নিশ্চিত। তবে সেখানে বাংলাদেশের উপযুক্ত প্রতিনিধি প্রেরণের বিষয়টি সরকারের সক্রিয় বিবেচনায় রয়েছে।

দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর পূর্বানুমতি সাপেক্ষে একসঙ্গে ৩টি সফরের প্রস্তুতি নিচ্ছিল সেগুনবাগিচা। যার মধ্যে ছিল ২৩-২৭ এপ্রিল থাইল্যান্ড, ২৮ এপ্রিল থেকে ২ মে সৌদি আরব এবং ৩-৬ মে গাম্বিয়া সফর।

কিন্তু মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সৌদি ও গাম্বিয়া সফর বাতিলের নির্দেশনা পায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাৎক্ষণিক মৌখিকভাবে সংশ্লিষ্টদের বাতিলের বিষয়টি অবহিত করা হয়।

সফর সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, ব্যাক টু ব্যাক ৩টি সফরের শেষের দু’টি সফর বাতিল হলেও প্রধানমন্ত্রীর ব্যাংকক সফর বহাল রয়েছে। আগামী ২৩ এপ্রিল চারদিনের সফরে থাইল্যান্ড যাবেন প্রধানমন্ত্রী। ব্যাংককে ইউএনএসকেপ সম্মেলনে অংশ নেয়া ছাড়াও থাইল্যান্ডের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে বাংলাদেশের সরকার প্রধানের। সেই বৈঠকে কৃষি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, জ্বালানি, প্রতিরক্ষা সহযোগিতাসহ ১০ থেকে ১২টি খাতে চুক্তি সইয়ের প্রস্তুতি রয়েছে।

স্মরণ করা যায়, সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের ইরানি কনস্যুলেটে ইসরাইলি হামলার জেরে গত সপ্তাহে ইসরাইলে ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইরান। ওই হামলার পর থেকে গোটা মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতি অস্থির হয়ে উঠেছে। ইসরাইলে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলার পর ইউরোপ এবং এশিয়ার মধ্যে বিমান চলাচল খানিকটা সীমিত হয়ে গেছে।

রয়টার্সের রিপোর্ট বলছে, সোমবার থেকে মধ্যপ্রাচ্যে নতুন করে ফ্লাইট সমস্যায় পড়েছে বৈশ্বিক বিমান সংস্থাগুলো।

মানবজমিনের সৌজন্যে

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর