fbpx





বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০২২ | ২১ আশ্বিন, ১৪২৯ | ৯ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা নির্বাচন

৫৫ পৌরসভায় ভোট চলছে


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:০০ : পূর্বাহ্ণ

চতুর্থ ধাপে দেশের ৫৫ পৌরসভায় আজ (১৪ ফেব্রুয়ারি) রোববার ভোট গ্রহণ চলছে। উৎসবমুখর এ নির্বাচন নিয়ে যেমন রয়েছে উত্তেজনা তেমনি ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে আছে শঙ্কাও। সকাল আটটা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। বিকাল চারটা পর্যন্ত ভোট চলবে। এ ধাপের ৫৫টি পৌরসভার মধ্যে ইভিএমে ২৯টি আর ২৬টিতে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট নেওয়া হচ্ছে।

চতুর্থ ধাপে গোলযোগ ছাড়াই ‘সুষ্ঠু ভোট’ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। তিনি বলেছেন, ‘ভোটের সময় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অত্যন্ত সতর্ক অবস্থায় থাকবে।’

৫৫টি পৌরসভায় মেয়র পদে ২১৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২ হাজার ৭০ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬১৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৫০১টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ১৬৭টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ৭৯৩টি ভোটকেন্দ্রে মোট ভোটার রয়েছেন ১৬ লাখ ৬৭ হাজার ২২৪ জন। যার মধ্যে পুরুষ আট লাখ ৩২ হাজার ৪২৮ ও নারী আট লাখ ৩৪ হাজার ৭৮৬ জন ভোটার রয়েছেন।

চতুর্থ ধাপের নির্বাচনী লড়াইয়ে অংশ নিয়েছে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশসহ ৯ দলের মেয়র প্রার্থী। পাশাপাশি মেয়র পদে লড়ছেন বেশকিছু স্বতন্ত্র প্রার্থীও। তবে বরাবরের মতই ভোটের প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে মূলত ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকা আর বিএনপির প্রতীক ধানের শীষের প্রার্থীদের মধ্যে।

গত ৩ জানুযারি চতুর্থ ধাপের ৫৬টি পৌরসভায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। পরে সোনাইমুড়ি ও ত্রিশাল পৌরসভা এ ধাপে যুক্ত হয়। অপরদিকে হাইকোর্টের আদেশে নাটোর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করা হয়। ফেনীর পরশুরাম পৌরসভায় সব পদে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হওয়ায় সেখানে ভোটের প্রয়োজন হচ্ছে না। আবার মাদারীপুরের কালকিনি পৌরসভার ভোট স্থগিত করে কমিশন। সব মিলিয়ে এখন ৫৫টিতে ভোট হতে যাচ্ছে।

যে ৫৫ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে:

ঠাকুরগাঁও জেলার ঠাকুরগাঁও (ইভিএম) ও রানীশংকাইল, রাজশাহীর নওহাটা, গোদাগাড়ী (ইভিএম), তানোর ও তাহেরপুর, লালমনিরহাটের লালমনিরহাট (ইভিএম) ও পাটগ্রাম, নরসিংদীর নরসিংদী, মাধবদী (ইভিএম), রাজবাড়ীর রাজবাড়ী (ইভিএম) ও গোয়ালন্দ, বরিশালের মুলাদী (ইভিএম), বানারীপাড়া, শেরপুরের শেরপুর (ইভিএম), শ্রীবরদী, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ (ইভিএম), নাটোরের বড়াইগ্রাম, খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা, বান্দরবানের বান্দরবান (ইভিএম), বাগেরহাটের বাগেরহাট (ইভিএম), সাতক্ষীরার সাতক্ষীরা (ইভিএম), হবিগঞ্জের চুনারুঘাট (ইভিএম), কুমিল্লার হোমনা (ইভিএম), দাউদকান্দি (ইভিএম), চট্টগ্রামের সাতকানিয়া, পটিয়া (ইভিএম), চন্দনাইশ, কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর (ইভিএম), হোসেনপুর, করিমগঞ্জ, টাঙ্গাইলের গোপালপুর (ইভিএম) ও কালিহাতী, পটুয়াখালীর কলাপাড়া (ইভিএম), চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, আলমডাঙ্গা (ইভিএম), চাঁদপুরের কচুয়া (ইভিএম), ফরিদগঞ্জ, নেত্রকোণার নেত্রকোণা (ইভিএম), যশোরের চৌগাছা (ইভিএম), বাঘারপাড়া, রাঙ্গামাটির রাঙ্গামাটি (ইভিএম), মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিম (ইভিএম), শরীয়তপুরের ডামুড্যা, জামালপুরের মেলান্দহ, ময়মনসিংহের ফুলপুর (ইভিএম), ত্রিশাল, জয়পুরহাটের আক্কেলপুর (ইভিএম), কালাই, নোয়াখালীর চাটখিল (ইভিএম), সোনাইমুড়ি, ব্রাহ্মণাড়িয়ার আখাউড়া (ইভিএম), লক্ষ্মীপুরের রামগতি (ইভিএম), ফরিদপুরের নগরকান্দা ও সিলেটের কানাইঘাট পৌরসভা।

এর আগে প্রথম ধাপের ২৫টি পৌরসভায় গত ২৮ ডিসেম্বর, দ্বিতীয় ধাপের ৬১ পৌরসভায় ১৬ জানুয়ারি এবং তৃতীয় ধাপের ৬৪টি পৌরসভায় ৩০ জানুয়ারি ভোট অনুষ্ঠিত হয় ।


আরও খবর