সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২ | ২০ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৪ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা আঞ্চলিক রাজনীতি

সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে খালেদা জিয়াকে গৃহবন্দি করে রেখেছে: ডা. শাহাদাত


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ৯:৩০ : অপরাহ্ণ

সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গৃহবন্দি করে রেখেছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির চট্টগ্রাম মহানগর শাখার আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া বর্তমানে বাসায় থাকলেও প্রকৃতপক্ষে তিনি মুক্ত নন।

আজ সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে নগরীর নাসিমন ভবনে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গনে কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ অভিযোগ করেন।

ডা. শাহাদাত বলেন, একটি বানোয়াট মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়া হয়েছে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার হীন উদ্দেশ্যে সরকার এই মামলা করেছে। খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য সরকার এ ধরনের মিথ্যা মামলার আশ্রয় নিয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন থেকে গুরুতর অসুস্থ। কিন্তু তারপরও এই অমানবিক সরকার বিভিন্ন কৌশলে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়ার জামিন প্রক্রিয়া বারবার বাধাগ্রস্ত করেছে। কারণ খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তাকে এই সরকারের সবচেয়ে বেশি ভয়।

এ বিএনপি নেতা হুঁশিয়ার করে বলেন, সরকারের অব্যাহত ভোট কারচুপি ও নির্যাতন-নিপীড়নে দেশপ্রেমিক গণতন্ত্রকামী জনগণের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। এখনই প্রতিরোধ গড়ে তোলা ছাড়া বিকল্প কোন পথ নেই। অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়ার জামিন ও চিকিৎসা নিয়ে ছিনিমিনি খেলার মাশুল সরকারকে একদিন দিতে হবে।

নগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে না পেরে সরকার তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিএনপিকে নির্মূল করার ভয়াবহ চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে। দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমানসহ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে অসংখ্য মিথ্যা মামলা দিয়ে সরকার গণতান্ত্রিক রাজনীতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে। এই অগণতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে ও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে দেশের জনগন রাজপথে নেমে আসবে।

নগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ইয়াসিন চৌধুরী লিটনের পরিচালনায় সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক এম এ আজিজ, মো. মিয়া ভোলা, এড. আব্দুস সাত্তার, এস কে খোদা তোতন, নাজিমুর রহমান, কাজী বেলাল উদ্দীন, আবদুল হালিম শাহ আলম, ইসকান্দার মির্জা, আহবায়ক কমিটির সদস্য শামসুল আলম, হারুন জামান, মো. আলী, এড. মফিজুল হক ভুইয়া, অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, আর ইউ চৌধুরী শাহীন, আহমেদুল আলম চৌধুরী রাসেল, আবুল হাসেম, আনোয়ার হোসেন লিপু, মনজুর আলম চৌধুরী মঞ্জু, কামরুল ইসলাম, মহিলা দলের সভাপতি মনোয়ারা বেগম মনি, সাধারন সম্পাদক জেলী চৌধুরী, স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারন সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলু প্রমুখ।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর