বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ | ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ১২ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা জাতীয়

আল জাজিরার প্রতিবেদন জাতিসংঘ তদন্ত করলে আপত্তি নেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ৪:০০ : অপরাহ্ণ

কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে জাতিসংঘ যদি তদন্ত করতে চায়, তাতে বাংলাদেশের কোনো আপত্তি নেই বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে ‘অল দ্য প্রাইম মিনিসটারস মেন’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রচারের অভিযোগে আল জাজিরার বিরুদ্ধে সরকার মামলা করার কথা ভাবছে বলে তিনি জানান।

শনিবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে এক অনুষ্ঠানের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

আল-জাজিরার রিপোর্ট প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পাবলিক বুঝেছে যে এটা মিথ্যা তথ্য। সেটা আমরা দেখব। যেখানে তথ্যগত ভুল আছে, সেগুলো আমরা তুলে ধরব। আর আমরা মামলা করব। আমরা সেটার জন্য কাজ করছি।’

তিনি বলেন, ‘মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্যের কারণে আল জাজিরার গ্রহণযোগ্যতা কমেছে। স্বাধীনতা যুদ্ধে যেখানে ৩০ লাখ মানুষ মারা গেছে, সেখানে তারা বলে তিন লাখ মারা গেছে। তারা অনেক সময় উল্টাপাল্টা তথ্য দেয়। প্রতিবেদন যদি সত্য হয় সেটা আমরা তদন্ত করব। যদি মিথ্যা হয় তাহলে বাদ দেব।’

আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিনি। উনার ৪৫ বছরের রাজনীতির জীবনে এখন এসএসএফ গার্ড দেয়। কোনোদিন কোনো বডিগার্ড ছিল না। কিন্তু ওই খানে (আল জাজিরার প্রতিবেদনে) একজনের ছবি দিয়ে বলেছে, এটা উনার বডিগার্ড। একসঙ্গে ছবি থাকলেই কেউ দেহরক্ষী হয় না। আগেও তারা ভুল তথ্য প্রচার করেছে। সরকার আরো যাচাই করবে আল জাজিরার বিষয়ে।’

মিয়ানমারে অভ্যুত্থানরে বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন জানান, ‘মিয়ানমার সেনাবাহিনী বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে চিঠি দিয়ে সেনা অভ্যুত্থানের কারণ ব্যাখ্যা করেছে। ব্যাখ্যায় মিয়ানমার বলেছে, দেশটিতে গত নভেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ১০ লাখের বেশি ভুয়া ভোট হয়েছে। এ অবস্থায় নির্বাচনে কারচুপির কারণেই সেনাবাহিনী ক্ষমতার পালাবদল ঘটিয়েছে।’


আরও খবর