বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ | ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ১২ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা চসিক নির্বাচন স্পেশাল

বাকলিয়ার উন্নয়নে বিএনপির অবদান সবচেয়ে বেশি: শাহাদাত


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :২২ জানুয়ারি, ২০২১ ৭:৩০ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন দাবি করেছেন নগরীর বাকলিয়া এলাকার উন্নয়নে বিএনপির অবদান সবচেয়ে বেশি। তিনি আজ শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) ওই এলাকায় গণসংযোগে গিয়ে বলেন, বাকলিয়ায় এক সময় কোন স্কুল কলেজ ছিল না। শিক্ষার মান উন্নত করার জন্য বিএনপির সময়ে বাকলিয়ায় উচ্চ ও মাধ্যমিক স্কুল এবং একমাত্র শহীদ এনএমজে ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। বাকলিয়া স্টেডিয়াম ও কর্ণফুলী শাহ আমানত সেতু নির্মাণ করা হয়েছিল। বিএনপি বাকলিয়ার আইলকে রাস্তায় পরিণত করেছে।

ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী শাহাদাত বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে অবহেলিত বাকলিয়াকে উন্নত এলাকায় রুপান্তর করা হয়েছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে বাকলিয়ার প্রতি নজর দেয়নি। আমি মেয়র নিবার্চিত হলে বৃহত্তর বাকলিয়াবাসীর জন্য চাইল্ড কেয়ার ও মাতৃসদন হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করবো। অবহেলিত বাকলিয়ার উন্নয়নে নিজেকে উৎর্সগ করবো।

গণসংযোগকালে পথসভায় বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘বাকলিয়া নগরের একটি প্রসিদ্ধ ও ঐতিহ্যবাহী এলাকা। এখানকার রাস্তাঘাট, অলিগলি সবই ডা. শাহাদাতের চেনা-জানা। র্দীঘদিন ধরে অবহলেতি থাকা এ বাকলিয়ায় বিএনপির আমলে অনেক উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে। বাকলিয়াবাসীর প্রতি বিএনপির অনেক দাবি আছে। সেই দাবি নিয়ে আমরা ডা. শাহাদাত হোসেনের জন্য ধানের শীষে ভোট চাইতে এসেছি। ডা. শাহাদাত হোসনে একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ।’

বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব হাবিবুন নবী খান সোহেল বলেন, ‘ভোটের দিন সকালে সকালে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভোটকেন্দ্র পাহারা দিয়ে ভোটের অধিকার আদায় করে নিতে হবে। পিছিয়ে থাকা বাকলিয়াবাসীর নাগরিক মান উন্নয়নের জন্য ডা. শাহাদাতের বিকল্প হতে পারে না।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, সদস্য ব্যারিস্টার মীর মো: হেলাল উদ্দিন, নগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এস কে খোদা তোতন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, সদস্য আনোয়ার হোসেন লিপু, গাজী মো. সিরাজ উল্লাহ, দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ইয়াছিন চৌধুরী আসু, বিএনপি নেতা ইসহাক চৌধুরী আলীম, এম আই চৌধুরী মামুন, ইব্রাহিম বাচ্চু, আমীন মাহমুদ, একে খান, আফতাবুর রহমান শাহীন, আলমগীর নুর, ইঞ্জিনিয়ার মেজবাহ উদ্দিন রাজু, পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হাসান লিটন, পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আরিফুল ইসলাম ডিউক, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী শামিমা নাসরিন, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি হাজী নবাব খান, মো. সেকান্দর, আব্দুল্লাহ আল ছগির, সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. এমরান, অঙ্গসংগঠনের নেতা ম হামিদ, এমদাদুল হক বাদশা, জিয়াউর রহমান জিয়া, গোলজার হোসেন, শরিফুল ইসলাম তুহিন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এস কে খোদা তোতন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, সদস্য আনোয়ার হোসেন লিপু, গাজী মো. সিরাজ উল্লাহ, দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ইয়াছিন চৌধুরী আসু, বিএনপি নেতা ইসহাক চৌধুরী আলীম, এম আই চৌধুরী মামুন, ইব্রাহিম বাচ্চু, আমীন মাহমুদ, একে খান, আফতাবুর রহমান শাহীন, আলমগীর নুর, ইঞ্জিনিয়ার মেজবাহ উদ্দিন রাজু, পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হাসান লিটন, পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আরিফুল ইসলাম ডিউক, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী শামিমা নাসরিন, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি হাজী নবাব খান, মো. সেকান্দর, আব্দুল্লাহ আল ছগির, সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. এমরান, অঙ্গসংগঠনের নেতা ম হামিদ, এমদাদুল হক বাদশা, জিয়াউর রহমান জিয়া, গোলজার হোসেন, শরিফুল ইসলাম তুহিন প্রমুখ।


আরও খবর