বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই, ২০২২ | ২৩ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৭ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা খেলা

সাকিবের রাজসিক ফেরায় জয়ে রঙিন বাংলাদেশ


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :২০ জানুয়ারি, ২০২১ ৫:৪৫ : অপরাহ্ণ

সাকিবের রাজসিক প্রত্যাবর্তনের দিনে করোনা বিরতি কাটিয়ে ম্যাচ জয়ে রাঙিয়েছে বাংলাদেশ। সাকিব-হাসান-মুস্তাফিজের বোলিং তোপের পর অধিনায়ক তামিম ইকবালের ৪৪ রানের ওপর ভর করে ৬ উইকেটে জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। সিরিজের ১ম ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৬ উইকেটে হারিয়ে ৩ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন সাকিব আল হাসান।

শুরুতে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১২২ রানে গুটিয়ে যায় সফররতরা। জবাব দিতে নেমে লক্ষ্যে পৌঁছাতে স্বাগতিকদেরকে হারাতে হয় ৪ উইকেট।

মিরপুর শের ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার (২০ জানুয়ারি) জয়ের জন্য ১২৩ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে ৪৭ রানের দুরন্ত শুরু শুরু এনে দেন তামিম-লিটন। উইন্ডিজ স্পিনার হোসেইনের বলে বিভ্রান্ত হয়ে লিটন আউট হন ১৪ রান করে। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি ৩-এ নামা নাজমুল হোসেন শান্তও। মাত্র ১ রান করে তিনিও শিকার হন হোসেইনের।

অধিনায়ক তামিমের সঙ্গী সাকিব আল হাসান। ধীরেসুস্থে ব্যাট চালাতে থাকেন দু’জন। ২২.৫ ওভারে দলীয় ৮৩ রানের মাথায় আকিল হোসেনের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ে ব্যক্তিগত অর্ধশত রানের স্বপ্ন জাগিয়েও মাঠ ছাড়তে হয় তামিম ইকবালকে। আউট হওয়ার আগে ৭ চারে ৪৪ রান আসে তামিমের ব্যাট থেকে।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে রাজকীয় প্রত্যাবর্তনের দিনে সাকিব আল হাসান জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার স্বপ্ন দেখালেও সেই আকিল হোসেনের বলেই ব্যক্তিগত ১৯ রান করে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। ৪ উইকেট খোয়ানোর পরও বাকিটা সময় হেসে খেলেই জয় তুলে নেন টাইগারদের দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ৩৩.৫ ওভার খেলে ৯৭ বল হাতে রেখেই জয় নিয়ে মাঠে ছাড়েন তারা। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ১৯ রান। রিয়াদ অপরাজিত থাকেন ৯ রানে। আকিল হোসেন নেন তিন উইকেট।

এরআগে, টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সাকিব-হাসান মাহমুদ আর মুস্তাফিজের বোলিং তোপের মুখে মাত্র ১২২ রানেই সবকটি উইকেট হারায় সফরকারিরা। মাত্র ৯ রানে নিজেদের ১ম উইকেট হারায় তারা। নিজের ১ম ওভারে বোলিং করতে এসেই ব্রেকথ্রু দেন মুস্তাফিজুর রহমান। তুলে নেন অ্যামব্রিসের উইকেট। আরেক ওপেনার জশুয়া ডি সিলভাকেও ফেরান মুস্তাফিজ।

উইন্ডিজদের রান তখন মাত্র ২৪। এরপর শুরু হয় সাকিব আল হাসান ঝড়। তার স্পিন ঘূর্ণিতে বিভ্রান্ত হতে থাকে ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানরা। আন্দ্রে ম্যাককার্থিকে বোল্ড করার মাধ্যমে শুরু। এরপর একে একে ফেরান জেসন মোহাম্মদ, বোনার ও আলজারি জোসেফকে।

সাকিব আল হাসানের সঙ্গে আক্রমণে যোগ দেন অভিষিক্ত হাসান মাহমুদও। দুজনের স্পিনবিষে নীল উইন্ডিজরা, নিয়মিত বিরতিতে হারাতে থাকে উইকেট। ফলে মাত্র ৩২.২ ওভারে তারা গুটিয়ে যায় ১২২ রানে। উইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন কাইল মায়ার্স।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেরা বোলিংয়ের তকমাটা তুলে নেন সাকিব আল হাসান। ৭.২ ওভারে দুই মেডেন নিয়ে মাত্র ৮ রান দিয়ে শিকার করেন ৪ উইকেট। অন্যদিকে অভিষেকেই মনকড়া বোলিং করেন তরুণ পেসার হাসান মাহমুদ। ৬ ওভারে ২৮ রান দিয়ে এক মেডেন নিয়ে তার শিকার বানান ৩ উইকেট। আর ৬ ওভারে ২০ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজুর রহমান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১২২/১০ (৩২.২ ওভার)

মায়ার্স ৪০, পাওয়েল ২৮, জেসন ১৭, ম্যাককার্থি ১২

সাকিব ৭.২-২-৮-৪, হাসান ৬-১-২৮-৩, মুস্তাফিজ ৬-০-২০-২, মিরাজ ৭-১-২৯-১

বাংলাদেশ : ১২৫/৪ ( ৩৩.৫ ওভার)

তামিম ৪৪, মুশফিক ১৯*, সাকিব ১৯, লিটন ১৪, রিয়াদ ৯*, শান্ত ১

আকিল ১০-১-২৬-৩, জেসন ৮-০-১৯-১


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর