বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই, ২০২২ | ২৩ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৭ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা চসিক নির্বাচন স্পেশাল

চট্টগ্রামকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো: ডা. শাহাদাত


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :২০ জানুয়ারি, ২০২১ ৬:০২ : অপরাহ্ণ

নির্বাচিত হলে চট্টগ্রামকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে পরিকল্পিত পদক্ষেপ নিবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম পর্যটন শিল্পের অপার সম্ভবনার জায়গা। এখানে রয়েছে ইতিহাসের নানান গুরুত্বপূর্ণ স্বারক, পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত ও ফয়’স লেকসহ অসংখ্য পর্যটন স্পট। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে চট্টগ্রামকে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে পরিকল্পিত পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।

আজ (২০ জানুয়ারি) বুধবার দিনব্যাপী নগরীর ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ও ১০ নম্বর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে এক পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দয্যের পাশাপাশি হাজার বছরের ঐতিহ্য সমৃদ্ধ এলাকা চট্টগ্রাম। এখানে ঐতিহাসিক ও পুরাতাত্তি¡ক নির্দশনে ভরপুর। বিএনপির আমলে পাহাড়তলী চক্ষু হাসপাতাল, ইউএসটিসি, চট্টগ্রাম টেলিভিশন কেন্দ্র স্থাপনসহ ফয়’সলেক ও চিড়িয়াখানাকে আধুনিকায়ন করা হয়েছিল। পরবর্তীতে পর্যটন শিল্পের বিকাশে সুপরিকল্পিত পদক্ষেপ না থাকায় এ শিল্পকে জাতীয় অর্থনীতির অন্যতম স্তম্ভ করা যায়নি। এ খাতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিলে চট্টগ্রাম পর্যটকদের স্বর্গভুমি বিবেচিত হতো। পর্যটন শিল্পকে জাতীয় আয়ের প্রধান খাত হিসেবে গ্রহণ করা সম্ভব হবে।

তিনি এলাকাবাসীর উদ্দেশে বলেন, আপনারা দেশের জনগোষ্ঠির একটি অংশ। কিন্তু এসব এলাকার ভাসমান, বস্তিবাসী ও ভুমিহীন মানুষের সংখ্যা বেশি। তারা সুবিধা ও শিক্ষা বঞ্চিত। কিন্তু এসব হতদরিদ্র জনগোষ্ঠির ভাগ্য উন্নয়নের কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। এখানে পাহাড় ধ্বস, সেনিটেশন, শিক্ষা, যাতায়াত ও বিভিন্ন সমস্যা দীর্ঘদিন বিরাজমান রয়েছে। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে হতদরিদ্র জনগোষ্ঠির জন্য নিরাপদ আবাসন সমস্যার সমাধানে অগ্রাধিকার দিবো।

গণসংযোগে অংশ নেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, কেন্দ্রীয় সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম ও হুম্মাম কাদের চৌধুরী।

আমান উল্লাহ আমান বলেন, আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র হরণকারী একটি দল। তারা দিনের ভোট রাতে নিয়ে সংসদে গিয়ে মানুষের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। তারা মুখে গণতন্ত্রের কথা বলে বাকশাল কায়েম করেছে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট চোরদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধানের শীষকে জয়ী করতে হবে।

গণসংযোগকালে উপস্থিত ছিলেন নগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর, যুগ্ন আহবায়ক এস কে খোদা তোতন, নাজিমুর রহমান, চাকসু ভিপি নাজিম উদ্দিন, বিএনপি নেতা ইসহাক কাদের চৌধুরী, নগর বিএনপির সদস্য আহমেদুল আলম চৌধুরী রাসেল, গাজী সিরাজ উল্লাহ, মঞ্জুর আলম চৌধুরী মঞ্জু, মো: কামরুল ইসলাম, আকবরশাহ থানা বিএনপির সভাপতি ও উত্তর পাহাড়তলী ওর্য়াড কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুস সাত্তার সেলিম, সাধারন সম্পাদক মাইনুদ্দিন চৌধুরী মাইনু, বিএনপি নেতা ন‚রুল আকবর কাজল, আলী আজম চৌধুরী, রেহান উদ্দীন প্রধান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলু, উত্তর কাট্টলী ওর্য়াড বিএনপির সভাপতি ও কাউন্সিলর প্রার্থী রফিক উদ্দীন চৌধুরী, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ছকিনা বেগম, উত্তর পাহাড়তলী ওর্য়াড বিএনপির সভাপতি জমির আহমেদ প্রমুখ।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর