রবিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২ | ১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ২ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা দেশজুড়ে

সাঈদ খোকনের এক মামলা প্রত্যাহার, আরেক মামলা খারিজ


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :১৯ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:০৪ : পূর্বাহ্ণ

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে দুটি মামলার একটি প্রত্যাহার ও একটি খারিজ করেছেন আদালত। আজ (১৯ জানুয়ারি) মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালত মামলা দুটি প্রত্যাহার ও খারিজ করে দেন।

গত ১১ জানুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালতে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসের বিরুদ্ধে মানহানির বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের নামে পৃথক এ দুটি মামলা করা হয়। একটি মামলার বাদী ছিলেন কাজী আনিসুর রহমান এবং অপর মামলার বাদী ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. সারওয়ার আলম।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সাকরাইন উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মেয়র ফজলে নূর তাপস বলেন, ব্যক্তিগত আক্রোশে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের নানা অভিযোগ ও বিরূপ মন্তব্য মানুষের কাছে হাস্যরসে পরিণত হয়েছে। গতকাল যে দুটি মামলা হয়েছে, সেই দুটি মামলার সঙ্গে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। দুজন আইনজীবী অতি উৎসাহী হয়ে এই মামলা করেছেন, আমি তাদের অনুরোধ করব মামলা দুটি প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য।

গত ৯ জানুয়ারি রাজধানীর কদম ফোয়ারার সামনে এক মানববন্ধনে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন অভিযোগ করে বলেন, ‘তাপস দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের শত শত কোটি টাকা তাঁর নিজ মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে স্থানান্তরিত করেছেন এবং শত শত কোটি টাকা বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগ করার মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা লাভ হিসেবে গ্রহণ করছেন।’

১১ জানুয়ারি খোকনের এ সমালোচনার জবাবে মেয়র তাপস বলেন, ‘কেউ যদি ব্যক্তিগত আক্রোশের বশবর্তী হয়ে কোনো কিছু বলে থাকেন, সেটার জবাব আমি দায়িত্বশীল পদে থেকে দেওয়াটা সমীচীন মনে করি না।’ এরপর সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে ‘মানহানিকর’ বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেন তাপস।

তাপস ঘোষণা দেওয়ার দুই ঘণ্টা পর জানা যায়, সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে দুই ব্যক্তি ঢাকার আদালতে মানহানির মামলার আবেদন করেন।

তার কিছু সময় পর এক বিবৃতিতে মেয়র তাপসের মানসম্মানের ‘বাজারমূল্য’ কত, তা জানতে চেয়ে গণমাধ্যমে একটি বিবৃতি ও অডিও বার্তা পাঠান সাঈদ খোকন।


আরও খবর