মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ১২ আশ্বিন, ১৪২৯ | ৩০ সফর, ১৪৪৪

মূলপাতা আঞ্চলিক রাজনীতি

২০১০ সালের চসিক নির্বাচনের কৌশল এবারও কাজে লাগাতে চান আমীর খসরু?


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :১৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:০৮ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেনকে বিজয়ী করতে ২০১০ সালের নির্বাচনের কৌশল কাজে লাগানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ২০১০ সালের চসিক নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওই নির্বাচনে আমরা পরিষ্কার একটি নীলনকশা করেছিলাম, যা আমাদের নেতাকর্মীরা অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছিল। যার ফলে আমাদের দলীয় প্রার্থী শক্তিশালী না হলেও আমরা আওয়ামী লীগকে পরাজিত করেছিলাম।

আজ (১৮ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে আয়োজিত ডা. শাহাদাত হোসেনের সমর্থনে সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির চসিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী আমীর খসরু বলেন, বিএনপি এবারের চসিক নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে। আমাদের এইবারের প্রার্থী অনেক শক্তিশালী। তিনি মহানগর বিএনপির সভাপতি। দীর্ঘদিন ধরে তিনি চট্টগ্রামের রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করেছেন। নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নেতাকর্মীদের সুখে দুঃখে সবসময় সহযোগিতা করেছেন। দলের জন্য সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন। ২০১০ সালে যেহেতু আমরা শৃঙ্খলিতভাবে একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করে জয়ী হয়েছিলাম, এইবারের নির্বাচনেও জয়ী হতে না পারার কোনো কারণ নেই।’

আসন্ন চসিক নির্বাচনে ধানের শীষে ভোট দিতে মানুষ উন্মুখ হয়ে আছে উল্লেখ করে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিএনপি অত্যন্ত শক্তিশালী। নির্বাচনের প্রেক্ষাপট দেখলে একেবারে স্বাধীনতার পর থেকে যা নির্বাচন হয়েছে, বস্তুতপক্ষে আওয়ামী লীগ কোন নির্বাচনে জয়ী হতে পারেনি। ২০১০ সালের চসিক নির্বাচনে ভোটের আগে, ভোটের দিন ও ফলাফল না দেওয়া পর্যন্ত যেমন সজাগ ছিলাম, ঠিক সেভাবে এবারের নির্বাচনেও আমরা যার যার অবস্থান থেকে কাজ করে যাব।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে আমীর খসরু বলেন, আওয়ামী লীগ শুধু চট্টগ্রামে নয় সারা বাংলাদেশে তারা নিজেরা নিজেরা মারামারি করে একজন অন্যজনকে হত্যা করছে। অস্ত্রশস্ত্র সজ্জা হয়ে তারা মহড়া করছে। তারা এসব করতে করতে জনগণের মন থেকে এতটা দূরে সরে গেছে যে, তাদের এই অস্ত্র ছাড়া আর কোনো অস্ত্র নেই। জনগণের কাছে তারা ফিরে যেতে পারছে না। আওয়ামী লীগ জনগণের কাছে ফিরে যাওয়ার কোন জায়গা রাখেনি। তারা যাবেও না, যেতেও পারবে না।

সভায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, বিএনপির নির্বাচনী গণসংযোগে প্রতিদিনই আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা হামলা করছে। আজকে পূর্ব নাসিরাবাদ গণসংযোগেও নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িতে হামলা করেছে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা। পরে আমাদের কর্মীরা পাল্টা প্রতিরোধ করেছে। এভাবে হলে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কীভাবে। প্রশাসনকে বলছি, অনতিবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করুন।

বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীমের সভাপতিত্বে ও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাসেম বক্করের পরিচালনায় সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার, ড. সুকোমল বড়ুয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সাবেক মন্ত্রী জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশীদ, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান, কেন্দ্রীয় সদস্য ব্যারিষ্টার মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন, মশিউর রহমান বিপ্লব।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর