বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২২ | ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ১৩ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা আন্তর্জাতিক

বাইডেনের শপথ গ্রহণ: মার্কিন ৫০ রাজ্যে সংঘাতের শঙ্কা, সতর্কতা জারি


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :১৭ জানুয়ারি, ২০২১ ৭:২৯ : পূর্বাহ্ণ

নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ সামনে রেখে সহিংসতার শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্য ও ডিস্ট্রিক্ট অব কলম্বিয়ায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডের সদস্যদের। রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির একটি চেক পয়েন্টে অস্ত্রসহ একজন মার্কিনকে আটক করেছেন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

আগামী বুধবার ২০ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের আগে রোববার দেশজুড়ে সশস্ত্র প্রতিবাদ হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নব নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ গ্রহণের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, মার্কিন মুলুকে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা ততই বাড়ছে।ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন তাণ্ডবের ঘটনা বিবেচনায় নিয়ে এবার কোনো ছাড় দিতে নারাজ দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী।

আগামী বুধবার শপথ অনুষ্ঠানের দিন কট্টর রিপাবলিকান সমর্থকদের সহিংস বিক্ষোভের আভাস দিয়ে আগেই সতর্ক করেছিল গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। ট্রাম্প সমর্থক ও ডানপন্থিদের অনলাইনে ডাক দেয়া ১৭ জানুয়ারির বিক্ষোভে সহিংসতার আশঙ্কায় বাড়ানো হয়েছে নজরদারি। এ বিক্ষোভটি সশস্ত্র বিক্ষোভ হবে বলে ধারণা করে সর্বোচ্চ সতর্কতা নিতে বলেছে এফবিআই। বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডের সদস্যদের। এরই ধারাবাহিকতায় এবার ওয়াশিংটন ডিসির পাশাপাশি ৫০টি অঙ্গরাজ্যের সবকটিতে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

ম্যারিল্যান্ড, মেক্সিকো এবং ইউটা অঙ্গরাজ্যের গভর্নর জরুরি অবস্থা জারি করেছে।

এছাড়া ক্যালিফোর্নিয়া, পেনিসিলভেনিয়া, মিশিগান, ভার্জিনিয়া, ওয়াশিংটন এবং উইসকনসিনে জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষী মোতায়েন করছে। এবং টেক্সাস শনিবার থেকে বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠান পর্যন্ত তার রাজধানী বন্ধ রাখছে।

টেক্সাসের জননিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক জানিয়েছে, সহিংস উগ্রপন্থীরা অপরাধমূলক সংঘাত চালানোর জন্য পরিকল্পিত বিক্ষোভ অনুপ্রবেশ করতে পারে।

বাইডেনের জয়ের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির জন্য ৬ জানুয়ারি নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালান ট্রাম্পের কয়েকশ সমর্থক।

বিক্ষোভকারীদের তাণ্ডবে হতবিহ্বল হয়ে পড়েন যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা, কয়েক ঘণ্টার জন্য অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে ক্যাপিটল ভবন।

ওই ঘটনায় এক পুলিশ সদস্যসহ পাঁচজন নিহত হন। এর জেরে যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ‘বিদ্রোহে উসকানি’ দেওয়ার অভিযোগ এনে তাকে অভিশংসিত করে।

তথ্যসূত্র: বিবিসি


আরও খবর