শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪ | ১০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৫ জিলকদ, ১৪৪৫

মূলপাতা আন্তর্জাতিক

নজিরবিহীন দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হলেন ট্রাম্প


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :১৪ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:৫০ : পূর্বাহ্ণ
Rajnitisangbad Facebook Page

দ্বিতীয়বারের মতো মার্কিন আইনসভার নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে অভিশংসিত হলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দেশটির ইতিহাসে এই প্রথম কোনও প্রেসিডেন্টকে দ্বিতীয়বারের মত অভিশংসিত করা হলো।

গত সপ্তাহে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয়কে কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে স্বীকৃতি দেওয়ার সময় ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালান ট্রাম্প সমর্থকরা।

ওই দাঙ্গায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে তাকে অভিশংসনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন প্রতিনিধি পরিষদের সদস্যরা। যাতে তার নিজ দল রিপাবলিকান পার্টির সদস্যদেরও সায় ছিল।

দেশটির স্থানীয় সময় বুধবার (১৩ জানুয়ারি) প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসনের প্রস্তাব পাস হয়। ট্রাম্পকে অভিশংসনের পক্ষে ২৩২টি ভোট পড়ে। অন্যদিকে, বিপক্ষে পড়ে ১৯৭টি ভোট। এর মধ্যে ১০ জন রিপাবলিকান ট্রাম্পকে অভিশংসনের পক্ষে ভোট দেন।

ট্রাম্পের বিদায়ের আগে সিনেটে কোনো অধিবেশন বসবে না। ফলে সিনেটে ট্রাম্প অভিশংসিত হলেও তিনি নির্ধারিত সময়েই, অর্থাৎ আগামী ২০ জানুয়ারি বিদায় নেবেন। তবে সিনেটে অভিশংসিত হলে ট্রাম্প আর কখনোই মার্কিন নির্বাচনে দাঁড়াতে পারবেন না।

প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ট্রাম্পকে “স্বাধীনতা, স্ব-সরকার ও আইনের শাসনের” জন্য হুমকি বলে অভিহিত করেন। ভোটের পর ডেমোক্র্যাটিক স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেন, আজ দ্বিদলীয় সমর্থনে এই ভোটে এটিই প্রমাণিত— কেউ আইনের ঊর্ধ্বে না; এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টও না।

তবে ওহাইওর কংগ্রেস সদস্য কট্টর ট্রাম্প সমর্থক জিম জর্ডান বলেন, অভিশংসন “দেশকে ঐক্যবদ্ধ করে না। এই সবই রাজনীতি সম্পর্কিত।” তিনি বলেন, ডেমোক্র্যাট প্রতিনিধিরা, ” প্রেসিডেন্টকে বাতিল করতে চান।”

ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর চাক শুমার বলেন, মার্কিন ইতিহাসে প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প যথোচিতভাবেই দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসিত হওয়ার কলঙ্ক বহন করছেন। কাজেই সিনেটেও তার বিচার হওয়া প্রয়োজন।

ট্রাম্প এখন সিনেটে দোষী সাব্যস্ত হবেন কি না, সেটিই দেখার বিষয়। ট্রাম্পের অভিশংসনের পক্ষে খোলাখুলি অবস্থান না নিলেও তাঁর পদত্যাগ কিংবা অপসারণকে সমর্থন করছেন বেশ কয়েকজন সিনেটর। তবে, সিনেটে ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করতে হলে ডেমোক্রেটিক পার্টিকে ১৭ জন রিপাবলিকান সিনেটরের ভোট পেতে হবে।

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর