শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২২ | ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ১৪ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা দেশজুড়ে

সাঈদ খোকনের মন্তব্য হাস্যকর, মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান মেয়র তাপসের


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :১২ জানুয়ারি, ২০২১ ১:৩৩ : অপরাহ্ণ

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের নানা অভিযোগ ও বিরূপ মন্তব্য মানুষের কাছে হাস্যরসে পরিণত হয়েছে জানিয়ে তার বিরুদ্ধে হওয়া দুই মামলার আবেদন প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাজধানীর নগর ভবনে ঘুড়ি উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।

এর আগে সোমবার (১১ জানুয়ারি) সকালে ঢাকা দক্ষিণ সিটির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করা হবে বলে জানিয়েছিলেন বর্তমান মেয়র ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। রাজধানীর মানিকনগরে খাল পরিষ্কার কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান। এর পর দুপুরে তাপসের বিরুদ্ধে মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে দুটি মামলার আবেদন করা হয়।

একটি মামলার বাদী কাজী আনিসুর রহমান। অপর মামলাটির বাদী সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী সারোয়ার আলম।

দুটি মামলা আবেদনের প্রতিক্রিয়ায় সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন সাংবাদিকদের বলেন, ‘তাপসের মান-সম্মানের বাজারমূল্য কত?’
তিনি তাপসকে আইনিভাবে মোকাবিলার পাশাপাশি রাজপথে দেনা-পাওনার হিসাব হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।

সাঈদ খোকনের এমন হুঁশিয়ারির পর আজ মেয়র তাপসের পক্ষ থেকে মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান এলো।

শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ব্যক্তিগত আক্রোশে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের নানা অভিযোগ ও বিরূপ মন্তব্য মানুষের কাছে হাস্যরসে পরিণত হয়েছে। তার বিরুদ্ধে যে দুটি মামলা হয়েছে, তার সঙ্গে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। অতি উৎসাহী হয়েই হয়তো তারা মামলা করেছেন। তাদের করা মামলা আমি প্রত্যাহারের আহ্বান জানাচ্ছি।

এ দুটি মামলার আদেশ দেওয়ার জন্য আগামী মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দিন নির্ধারণ করেছেন আদালত।

গত শনিবার (৯ জানুয়ারি) রাজধানীতে এক মানববন্ধনে শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, তাপস মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে গলাবাজি করে চলেছেন। তাপস দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের শত শত কোটি টাকা তার নিজ মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে স্থানান্তরিত করেছেন। আমি তাঁকে বলব, রাঘব বোয়ালের মুখে চুনোপুটির গল্প মানায় না। দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়তে হলে সর্বপ্রথম নিজেকে দুর্নীতিমুক্ত করুন, তারপর চুনোপুটির দিকে দৃষ্টি দিন।’

পরদিন রোববার সাঈদ খোকনের এ বক্তব্যকে তার ব্যক্তিগত অভিমত বলে মন্তব্য করেন মেয়র তাপস। এরপর আজ সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলার কথা জানালেন তাপস।


আরও খবর