মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২৪ মাঘ, ১৪২৯ | ১৫ রজব, ১৪৪৪

মূলপাতা আওয়ামী লীগ

বিএনপির চাইতে আ’লীগের শাসনামলেই জননিরাপত্তা ভালো, মির্জা ফখরুলকে তথ্যমন্ত্রী


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :১০ জানুয়ারি, ২০২১ ৮:১৬ : অপরাহ্ণ

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির মুখে নিরাপত্তাহীনতার কথায় জনগণ আতঙ্কিত হয়। বিএনপির শাসনকালের চাইতে আওয়ামী লীগের শাসনামলেই জননিরাপত্তা ভালো রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যারা পেট্রলবোমায় মানুষকে জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা করে এবং হাতে রক্ত ও আগুন নিয়ে মানুষকে প্রচণ্ড নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে ফেলে, তারা যখন নিরাপত্তাহীনতার কথা বলে তখন মানুষ আতঙ্কিত হয়। মানুষ ভাবে, আবার কোনো পেট্রলবোমা ধেয়ে আসছে কি না!’

আজ রোববার (১০ জানুয়ারি) সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) নবনির্বাচিত নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

উল্লেখ্য, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শনিবার (৯ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে দেশে আইনের শাসন না থাকায় ঘরে-বাইরে কারো ন্যূনতম নিরাপত্তা নেই বলে মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলামকে অনুরোধ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, ‘মানুষকে জিম্মি করা, মানুষের ওপর হামলা করার রাজনীতি বন্ধ করুন। যদি পরিসংখ্যান নেন তাহলে দেখতে পাবেন, আপনারা যখন ক্ষমতায় ছিলেন সেই সময় জননিরাপত্তা যতটুকু ছিল, বাংলাদেশে আজকে অনেক ভালো জননিরাপত্তা আছে।’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংসদ ক্যাপিটল হিলের ঘটনা নিয়ে প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ক্যাপিটল হিলের ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক, অনভিপ্রেত এবং এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের ইতিহাসের জন্য কলঙ্ক। তবে এতোকিছুর পরও সেখানে যৌথ অধিবেশনের মাধ্যমে নির্বাচনের ফলকেই সেখানকার সংসদ অর্থাৎ কংগ্রেস এবং সিনেট অনুমোদন দিয়েছে। সেখানে এতো কিছুর পরও গণতন্ত্রের বিজয় হয়েছে।’

নোয়াখালীতে মির্জা কাদেরের বক্তব্য নিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এমন বক্তব্য আমাদের দলে এর আগেও বহুজন দিয়েছেন। আমাদের দলে মুক্তভাবে কথা বলার অধিকার আছে, সেটিরই বহিঃপ্রকাশ হচ্ছে মির্জা কাদের সাহেবের বক্তব্য।’

মতবিনিময় সভায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান উপস্থিত ছিলেন। ডিআরইউ সভাপতি মুরসালিন নোমানী ও সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান এসময় নিজেদের পরিচিতি তুলে ধরেন ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। তথ্যমন্ত্রী এবং প্রতিমন্ত্রী ডিআরইউ’র নতুন পরিষদকে অভিনন্দন জানান এবং রিপোর্টারদের তারুণ্যদীপ্ত সংগঠন হিসেবে ডিআরইউ’র অব্যাহত অগ্রযাত্রা কামনা করেন।


আরও খবর