বুধবার, ৬ জুলাই, ২০২২ | ২২ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৬ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা ব্যবসা-বাণিজ্য

বিশ্বের দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী মাস্ক


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :২৪ নভেম্বর, ২০২০ ৭:৫৮ : অপরাহ্ণ

বিশ্বের দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী ব্যক্তি এখন মার্কিন প্রতিষ্ঠান টেসলা ও স্পেসএক্সর প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক। ধনকুবের বিল গেটসকে টপকে মাস্ক জায়গা করে নেন সেরা ধনীর দ্বিতীয় স্থানটি। গাড়ি তৈরির প্রতিষ্ঠান টেসলার বদৌলতে ইলন মাস্কের সম্পদ বাড়ছে।

এর আগে গত সপ্তাহে ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মার্ক জুকারবার্গকে পেছনে ফেলে বিশ্বের তৃতীয় শীর্ষ ধনী হয়েছিলেন ইলন মাস্ক। এ সপ্তাহেও টেসলার শেয়ারদর ছিলো বাড়তির দিকে। ফলে সপ্তাহ না পেরোতেই ধনকুবের বিল গেটসকে পেছনে ফেলেছেন তিনি।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নার সূচক বলছে টেসলার শেয়ারদরের উল্লম্ফনে ইলন মাস্কের সম্পদের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৭.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। উল্লেখ্য, গত এক বছরে ইলন মাস্কের আয় হয়েছে ১০০ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি— যা ব্লুমবার্গ  বিলিয়নার সূচক মতে, এ বছরে সর্বোচ্চ আয়।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নার সূচকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী তালিকার শীর্ষে রয়েছেন অ্যামাজনের মালিক জেফ বোজেস। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ১৮২ বিলিয়ন ডলারের বেশি।

উল্লেখ্য দক্ষিন আফ্রিকার প্রিটোরিয়ায় জন্ম নেয়া মার্কিন উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী ইলন মাস্ক এর পুরো নাম ইলন ‘রীভ মাস্ক। তাঁর জন্ম হয়েছিল ১৯৭১ সালের ২৮শে জুন। ১৯৯৯ সালে এক্স ডট কম নামে তাঁর প্রতিষ্ঠিত অনলাইন ভিত্তিক অর্থ লেনদেনের মাধ্যমটিই বর্তমানে সারাবিশ্বে তুমুল জনপ্রিয় পে-পাল। ২০০২ সালে তিনি স্পেস এক্স ও ২০০৩ সালে টেসলা মোটরস প্রতিষ্ঠা করেন। ২০০২ সালে তিনি মার্কিন নাগরিকত্ব লাভ করেন।

মাস্ক তাঁর জীবনের দ্বিতীয় দশকের শেষ দিকে কমপ্যাক্ট কম্পিউটার্সের একটি শাখার কাছে তাঁর প্রথম কোম্পানী জিপ টু বিক্রি করে প্রথমবারের মত মাল্টিমিলিয়নেয়ারের খাতায় নাম লেখান। ২০১২ সালের মে মাসে তিনি শিরোনামে উঠে আসেন যখন তাঁর কোম্পানী স্পেস এক্স প্রথমবারের মত আন্তর্জাতিক মহাকাশ কেন্দ্রে অর্থের বিনিময়ে ভ্রমনেচ্ছুক যাত্রী প্রেরণ করে। ২০১৬ সালে সোলার সিটি কিনে নেয়ার মধ্যদিয়ে তিনি তাঁর অর্জনের পাল্লা আরও ভারী করেন এবং ট্রাম্প প্রশাসনের প্রথম দিকে একজন উপদেষ্টা হওয়ার প্রস্তাব গ্রহণ করার মাধ্যমে ব্যবসায়িক জগতের একজন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি হিসেবে নিজের অবস্থান পাকা করেন।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর