বুধবার, ৬ জুলাই, ২০২২ | ২২ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৬ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা ইসলামী দল

রাসুলের দুশমনরা রেহাই পাবে না: বাবুনগরী


রাজনীতি সংবাদ ডেস্ক প্রকাশের সময় :২১ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৪৪ : অপরাহ্ণ

যারা ইসলামের শত্রু, রাসূলের দুশমন; নাস্তিক- মুর্তাদদের কবর রচনার জন্য হেফাজতে ইসলামের অভ্যুদয় হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সংগঠনটির নবনির্বাচিত আমির জুনায়দ বাবুনগরী। তিনি বলেন,বিশ্বের দুইশ’ কোটি মুসলমানের ভালোবাসার প্রতীক মহানবীর (সা). বিরুদ্ধে ফ্রান্স সরকার ব্যঙ্গ করে, কটাক্ষ করে মুসলমানদের কলিজায় আগুন লাগিয়েছে। রাসূলের অপমানের মোকাবেলায় রক্ত সাগর ভাসিয়ে দেবে।

শনিবার (২১ নভেম্বর)) বিকেলে সিলেট রেজিস্টারি মাঠে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ফ্রান্সে মহানবীকে (সা.) নিয়ে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলাম সিলেট শাখা এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

জুনায়দ বাবুনগরী বলেন, হেফাজতে ইসলাম সরকারবিরোধী কোনো সংগঠন নয়, আবার সরকারদলীয় কোনো সংগঠনও নয়। এ দেশের মসজিদের মুসল্লিরা হেফাজতের সদস্য, মসজিদের ইমাম-মোয়াজ্জিন, মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষক, স্কুল-কলেজের ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা হেফাজতের সদস্য। তাই হেফাজতকে নিয়ে কোনো রাজনীতি নয়। নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত হলো হেফাজতের কর্মসূচি। হেফাজত এ দেশে নামাজ কায়েম করতে চায়।

কাদিয়ানীদেরকে কাফের ঘোষণার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, আমি মনে করি স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীও কাদিয়ানীদেরকে মুসলিম বলে মনে করেন না। শুধু ব্যক্তিগতভাবে কাদিয়ানীদেরকে কাফের মনে করলে হবে না। রাষ্ট্রীয়ভাবেও কাদিয়ানীদেরকে কাফের ঘোষণা করতে হবে। ৯০ ভাগ মুসলমানের দেশে কাদিয়ানীদেরকে কাফের ঘোষণায় কোন সমস্যা থাকার কথা নয়।’

জুনায়দ বাবুনগরী বলেন, ‘আমরা হিন্দুদেরকে কাফের ঘোষণার দাবি জানাই না, কারণ তারা কাদিয়ানীদের মতো মুসলিম পরিভাষা ব্যবহার করে না। নিজেদেরকে মুসলিম দাবি করে না। কাদিয়ানীরা অন্যন্য সংখ্যালঘুদের ন্যায় নিজেদের ধর্ম পরিচয়ে এদেশে বাস করুক, আমাদের কোন আপত্তি নেই। এই কাদিয়ানীরাই বিশ্ব নবীর বড় শত্রু।’

তিনি বলেন,’ সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী এদেশ মদিনা সনদে চলবে। অন্য কোন সনদে চলবে না। তাই মদিনা সনদের সাথে সাংঘর্ষিক কাজ শক্তভাবে দমন করতে হবে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব নূর হোসাইন কাসেমী বলেন,’ আল্লাহর রাসূল মহানবীর (সা.) শান মান রক্ষায় মুসলিম জাতি রক্ত দিতে প্রস্তুত। যতদিন আল্লাহর হাবীবের শানে বেআদবি করা হবে আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করে যাবো। আমরা সরকারের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাই, সংসদে অবিলম্বে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনা হোক।’

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা জিয়া উদ্দীনের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন হেফাজতের নায়েবে আমির প্রফেসর ড. আহমদ আবদুল কাদের, উপদেষ্টা রশিদুর রহমান ফারুক বর্ণভী, উবায়দুল্লাহ ফারুক আকুনী, নূরুল ইসলাম খান সুনামগঞ্জী, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট আবদুর রকীব ও সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর