বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২২ | ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ১৩ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪

মূলপাতা আওয়ামী লীগ

বিএনপির নীলনকশায় বাসে আগুন: কাদের


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :১৩ নভেম্বর, ২০২০ ৩:৪৪ : অপরাহ্ণ

পূর্বপরিকল্পিত নীলনকশা অনুযায়ী বিএনপি বাসে আগুন দিয়ে নাশকতা করেছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা-১৮ আসনের নির্বাচনী এলাকার তিনটি স্থানসহ রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে আগুন সন্ত্রাস চালানো হয়েছে। এটা তাদের (বিএনপি) আগুন সন্ত্রাস সংস্কৃতির পুনরাবৃত্তি। ইতোমধ্যে একটি ভিডিও উদ্ধার করা হয়েছে। সেটা পুলিশের কাছে আছে। ভিডিওতে বিএনপি কর্মীদের উপস্থিতি চেহারা দেখলে বোঝা যায়। কৌশলটা এমন ছিল যে, বাসের বেতরে যাত্রী সেজে বসে থেকে আগুন লাগিয়ে নিজেরাই চিৎকার করে পেছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, গতকাল যে ঘটনাটি ঘটেছে, সেটা বিএনপিরই কাজ। এই নাশকতা প্রমাণ করেছে, বিএনপি তাদের চিরাচরিত সন্ত্রাসী পথ পরিহার করতে পারেনি। এ ধরনের সন্ত্রাসী চরিত্র ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের কারণে জনগণ তাদের বারবার প্রত্যাখান করেছে।

তিনি বলেন, রাজধানীতে বাসে আগুনের ঘটনা প্রমাণ করে বিএনপি তাদের চিরাচরিত সন্ত্রাসী পন্থা পরিহার করতে পারেনি। তাদের নীলনকশা অনুযায়ী চলতে দিতে হবে। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করতে দিতে হবে। তাদের এ ধরনের নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের কারণে জনগণ তাদের বারবার প্রত্যাখ্যান করেছে।

অতীতের মতো আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এ ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের দাঁতভাঙা জবাব দেবে জানিয়ে তিনি বলেন, এখন বিএনপি কোনো ধরনের গণতন্ত্র, নিয়মকানুন ও বিধিনিষেধের তোয়াক্কা না করে তাদের নাশকতামূলক চরিত্রকে আঁকড়ে ধরে রাখছে। আমরা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলতে চাই, তাদের এ ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না।

উল্লেখ্য, ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচন চলাকালে বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) রাজধানীর অন্তত ৯ স্থানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত দেড় শতাধিক ব্যক্তিকে আসামি করে মোট ৮টি মামলা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কেন্দ্রীয় সদস্য শাহাবুদ্দিন ফরাজী, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।


আরও খবর