বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪ | ১০ শ্রাবণ, ১৪৩১ | ১৮ মহর্‌রম, ১৪৪৬

মূলপাতা খেলা

কানাডাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনা


স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশের সময় :১০ জুলাই, ২০২৪ ৮:২৭ : পূর্বাহ্ণ
ছবি: সংগৃহীত
Rajnitisangbad Facebook Page

সেমিফাইনাল ম্যাচ মানেই দুই দলের লড়াই। তবে কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনা-কানাডা ম্যাচে সেটি দেখা যায়নি। তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা একক আধিপত্য বিস্তার করে কানাডাকে ২-০ গোলে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো কোপা আমেরিকার ফাইনালে পা রেখেছে। আর এক ম্যাচ জিতলেই বিশ্বকাপের পর আরও এক শিরোপা নিজেদের করে নেবে আকাশি-সাদা জার্সিধারীরা।

কানাডার বিপক্ষে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে জালের দেখা পেয়ে যান মেসি। এঞ্জো ফার্নান্দেজের পাসে হালকা করে পা ছুঁইয়ে দিয়ে চলতি কোপায় নিজের প্রথম গোলটি আদায় করে নেন মেসি।

বুধবার বাংলাদেশ সময় সকালে নিউ জার্সির মেট লাইফ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে কানাডা পুরো ৯০ মিনিট খেলে কেবল দুইটি শট টার্গেটে রাখতে সক্ষম হয়েছে। কানাডার রক্ষণভাগের ফুটবলারদের ব্যস্ত সময় পার করতে হয় মেসি-আলভারেজদের সামাল দিতেই।

ইতিহাস গড়ার স্বপ্ন নিয়ে ম্যাচের শুরুর দিকেই জোড়া সুযোগ পেয়েছিল কানাডা। তবে কোনটিই লুফে নিতে পারেননি কানাডিয়ানরা। ম্যাচের চতুর্থ মিনিটেই সুযোগ হাতছাড়া করে কানাডা। সপ্তম মিনিটে ফের সুযোগ পেয়েছিল তারা। তবে ভুল শটে সুযোগ হারায় কানাডিয়ানরা।

ম্যাচের ১২তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে প্রথম সুযোগ তৈরি করেছিল আর্জেন্টিনা। মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে এগিয়ে যান ডি মারিয়া। এরপর লিওনেল মেসিকে বাড়ান তিনি। কিন্তু গোলপোস্টের পাশ ঘেঁষে চলে যায় মেসির বাঁ পায়ের শট।

তবে লিড নিতে বেশিক্ষণ সময় নেয়নি বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের ২২তম মিনিটে লিড এনে দেন আলভারেজ। মাঝমাঠ থেকে আলভারেজকে খুঁজে নেন ডি পল। সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেননি ম্যানসিটির এই তারকা। দারুণ শটে চলতি কোপায় নিজের প্রথম গোল আদায় করে নেন তিনি।

এরপর প্রথমার্ধের শেষ দিকে জোড়া সুযোগ মিস করেন মেসি। ম্যাচের ৪৩তম মিনিটে সহজ সুযোগে পা ছুঁইয়ে লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি মেসি। কয়েক মিনিট পর ডি মারিয়ার পাস থেকেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পাননি আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

তবে বিরতি থেকে ফিরেই খোলস থেকে বেরিয়ে আসেন মেসি। ম্যাচের ৫১তম মিনিটে অ্যাঞ্জো ফার্নান্দেজের অ্যাসিস্টে গোলবারের কাছ থেকে আলতো ছোঁয়ায় চলতি কোপায় নিজের প্রথম গোল করেন বিশ্বকাপজয়ী এ অধিনায়ক।

 

শুরুর দিকে এটিকে অফসাইড ভাবা হচ্ছিল। পরে ভিএআরের সাহায্যে নিশ্চিত হয় মেসির গোল। লাতিন আমেরিকায় এ নিয়ে ১৪ গোল করলেন আর্জেন্টাইন ম্যাজিশিয়ান।

ম্যাচের বাকি সময়ে কোনো ভুল করেননি আর্জেন্টিনা। যদিও গোল শোধে মরিয়া কানাডা ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে দারুণ সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু এমি মার্টিনেজের অতিমানবীয় পারফরম্যান্সের কাছে তা যথেষ্ট ছিল না। শেষ পর্যন্ত ২-০ গোল ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে লিওনেল স্কালোনির দল।

বাংলাদেশ সময় অনুসারে আগামী সোমবার সকালে অনুষ্ঠেয় কোপা আমেরিকার ফাইনালে উরুগুয়ে কিংবা কলম্বিয়ার বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। কোপার সবশেষ আট আসরে এটি তাদের ষষ্ঠ শিরোপা নির্ধারণী লড়াই। আর দ্বিতীয় সেমিতে হেরে যাওয়া দলের বিপক্ষে ফাইনালের আগের দিন তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম‍্যাচে নামবে কানাডা।

মন্তব্য করুন
Rajnitisangbad Youtube


আরও খবর