সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২ | ২০ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৪ জিলহজ, ১৪৪৩

মূলপাতা আঞ্চলিক রাজনীতি

মামুনুলকে ওস্তাদ সম্বোধন করে নিক্সনের হুংকার, যুবলীগ মাঠে নামলে…


রাজনীতি সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের সময় :৩০ নভেম্বর, ২০২০ ৭:১১ : অপরাহ্ণ

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে ওস্তাদ সম্বোধন করে যুবলীগের নবনির্বাচিত প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেছেন, কোন দেশের টাকা খেয়েছেন। হঠাৎ করে চাঙা দিয়ে উঠছেন। ওইসব দেশের দালালি বন্ধ করেন। এটা বঙ্গবন্ধুর স্বাধীন বাংলাদেশ। শেখ পরশ ও নিখিল ভাইয়ের নেতৃত্বে যুবলীগ যদি মাঠে নামে, তাহলে ওস্তাদ দৌড়ায়ে কূল পাবেন না। তাই নেত্রীকে চ্যালেঞ্জ করার আগে নেত্রীর সন্তানদের একটু বুঝে নেন।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর পুরাতন রেলওয়ে স্টেশনে চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা যুবলীগ আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ হুংকার দেন। অনুষ্ঠানে যুবলীগের নবনির্বাচিত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলমকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের রাজধানীর ধোলাইরপাড় এলাকার চৌরাস্তায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি ভাস্কর্য স্থাপনের কার্যক্রম চলছে। এ ভাস্কর্যকে ‘মূর্তি’ হিসেবে আখ্যায়িত করে এর নির্মাণকাজ বন্ধের দাবিতে আন্দোলন করে আসছে ধর্মভিত্তিক কয়েকটি রাজনৈতিক দল ও সংগঠন। এসব ধর্মভিত্তিক দলগুলোর বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ কয়েকটি সংগঠন।

গত ১৩ নভেম্বর রাজধানীর বিএমএ অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে শানে রিসালাত কনফারেন্সে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করে তা অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়েছিলেন মামুনুল হক। এরপর থেকে মামুনুল হককে নিয়ে আজ বেশ কয়েক দিন ধরেই সারাদেশে বিতর্ক চলছে। গত ২৭ নভেম্বর হাটহাজারীতে আল আমিন সংস্থা নামের একটি সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত মাহফিলে বয়ান করার কথা ছিল মামুনুল হকের। এর আগের দিন ২৬ নভেম্বর বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে ‘জঙ্গিবাদবিরোধী ছাত্র ও যুব ঐক্য পরিষদ’ ব্যানারে আয়োজিত এক সমাবেশে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরামামুনুল হককে চট্টগ্রামে প্রতিহত করার ঘোষণা দেন। শেষ পর্যন্ত মামুনুল হক চট্টগ্রামে যাননি।

আজ চট্টগ্রামে এসে ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী মামুনুল হককে উদ্দেশ করে বলেন, এই রকম ধমক আর দিয়েন না। দালালি করেন অন্য দেশের। আমরা জানি ওই দালালদের কাছ থেকে মাল খেয়েছেন, সেই মাল নিয়ে এখন লাফ দিয়ে উঠে পড়ছেন। চ্যালেঞ্জ করেন।

তিনি হুঁশিয়ার করে বলেন, যুবলীগ যদি মাঠে নামে তাহলে পালানোর পথ পাবেন না। যুবলীগ মাঠে নামলে এক সেকেন্ডও দাঁড়াইতে পারবেন না। যদি সাহস থাকে তাহলে মাঠে আসুন, মাঠে আসল খেলা হবে। জাতির পিতা বা আমাদের নেত্রীকে উদ্দেশ্য করে কিছু বলার আগে আমাদের মোকাবেলা করতে হবে।

অনুষ্ঠানে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম বদিসহ মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলার যুবলীগ নেতারা বক্তব্য রাখেন।


Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আরও খবর